করিমগঞ্জ (অসম): প্রবল করেনা সংক্রমণের মাঝেই ভারত ও বাংলাদেশে আটকে পড়া দুই দেশের নাগরিকরা নিজ নিজ দেশে ফিরলেন। বৃহস্পতিবার অসমের করিমগঞ্জ স্থলবন্দর সীমান্ত দিয়ে ১২০ জন ভারতীয় ফিরে এলেন। আর ভারত থেকে ফিরে গেছেন ৪০ জন বাংলাদেশি। এরা সিলেট বিভাগের শেওলা স্থল বন্দর দিয়ে তাঁদের দেশে ঢুকলেন করোনা সংক্রমণ দুই দেশেই ছড়িয়েছে।

দক্ষিণ এশিয়ায় সর্বাধিক সংক্রমণ ও মৃত্যু ভারতে। আর বাংলাদেশেও বাড়ছে মৃত্যু।এই অবস্থায় দুই দেশে যারা এখনও আটকে তাদের ফেরত পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে। দুই দেশের সরকারের যোগাযোগের মাধ্যমে ভারতের ১২০ জন ও ৪০ জন বাংলাদেশিকে নিজ নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হয়েছে।

প্রত্যেকে নিজের দেশের দূতাবাসের মাধ্যমে দেশে ফিরে আসার জন্য আবেদন করেছিলেন। করোনা সংক্রমণের পর থেকে গত দু মাস ধরেই এরা আটকে পড়েছিলেন। প্রাথমিকভাবে সীমান্তের করিমগঞ্জ ও বাংলাদেশের শেওলা স্থলবন্দরের কাজকর্ম বন্ধ ছিল। ফলে দু দেশেই আটকে প্রবল অসুবিধার মধ্যে পড়েন সবাই। তার মাঝে শুরু হয় লকডাউন। আপাতত ভারত ও বাংলাদেশে লকডাউন শিথিল করা হয়েছে।

তারপরেই শুরু হয় সীমান্ত স্থলবন্দরের কার্যক্রম। ওয়ার্ল্ডোমিটার জানাচ্ছে, করোনা সংক্রমণে ভারতে ১ লক্ষ ৫৯ হাজারের বেশি আক্রান্ত। মৃত সাড়ে ৪ হাজারের বেশি। আর বাংলাদেশে সংক্রামিত ৪০ হাজারের বেশি। মৃত ৫০০ ছাড়িয়ে বাড়ছে আরও।

প্রশ্ন অনেক: দ্বিতীয় পর্ব