নয়াদিল্লিঃ  পাকিস্তান সীমান্তে সেনা মোতায়েন জোরদার করছে ভারত। পাকিস্তান সীমান্তে প্রায় ২০০ সাঁজোয়া গাড়ি মোতায়েন করতে চলেছে ভারত। প্রত্যেকটি সাঁজোয়া গাড়িতে বসানো থাকবে একেবারে দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি ট্যাংক বিধ্বংসী গাইডেড ক্ষেপণাস্ত্র। পঞ্জাব এবং রাজস্থানের পাকিস্তান সীমান্ত সংলগ্ন এলাকায় বিশাল সেনা সাঁজোয়া গাড়ি মোতায়েন করা হবে। পুরো অঞ্চলটি জুড়ে নদী এবং খাল রয়েছে। অনেক ক্ষেত্রেই নজরদারিতে ফাঁক থেকে যেত। আর সেই কারণে বিশাল সংখ্যক সেনা মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে দিয়ে ভারতীয় সেনাবাহিনীর সক্ষমতা আরও বাড়বে বলেই মনে করা হচ্ছে।

রাস্তা বা সড়ক পথে ৫০০ এবং নদী বা খাল দিয়ে আড়াইশ কিলোমিটার টহল দেওয়ার সক্ষমতা রয়েছে এ সব সাঁজোয়া গাড়ির। সব ধরণের রাসায়নিক, জৈব এবং পরমাণু দূষণ নির্ণয়ে সক্ষম আট চাকার এই গাড়ির সব চাকাই স্টিয়ারিং হুইলের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণ করা যাবে। একে এইট ডব্লিউডি বা ৮*৮ বলা হয়।

এতে ট্যাংক বিধ্বংসী গাইডেড ক্ষেপণাস্ত্র বা এটিজিম, ৩০ মিমি কামান এবং ৭.৬২ সম অক্ষের মেশিন গান বসানো থাকবে। কামান যে দিকে তাক করা হবে এটিও সেদিকে তাক হয়ে যাবে। পাশাপাশি কাঁধ থেকে ছোড়ার উপযোগী ট্যাংক বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র এতে সরবরাহ করার নির্দেশ দিয়েছে ভারতীয় সেনাবাহিনী। পাক-ভারত উত্তেজনা যখন তুঙ্গে তখন এই সাঁজোয়া বহর সীমান্তে মোতায়েনের উদ্যোগ নিল নয়াদিল্লি।\

ফাইল ছবি

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও