শ্রীনগর- পাক সীমান্তের জঙ্গি ঘাঁটিতে ফের হামলা চালাল ভারত। টংধর সেক্টরের ওপারে নীলম ভ্যালিতে ৩টি জঙ্গিঘাঁটি ধ্বংস করেছে ভারতীয় সেনা। তবে এবার আর সীমান্ত পেরিয়ে পাক ভূমে গিয়ে নয়। এবার সীমান্তের এপার থেকেই হামলা করে ভারত। জানা যাচ্ছে এই হামলায় মৃত্যু হয়েছে ৭ থেকে ১০ জন সেনার।

এই ঘটনার প্রভাব পড়েছে ভারত ও পাকিস্তানের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কে। ঘটনার পরে ইসলামাবাদে ভারতীয় উপ-রাষ্ট্রদূতকে ডেকে পাঠানো হয় বলে জানা গিয়েছে। সেনা প্রধান বিপিন রাওয়াত জানিয়েছেন, শনিবার রাতে টংধর সেক্টরে অস্ত্রবিরতি লঙ্ঘণ করে পাকিস্তানের সেনা। পাক সেনার গুলির জবাব দিতে ভারতীয় সেনাও গুলি ছোড়া শুরু করে। পাক সেনার গুলিতে ২ ভারতীয় সেনা ও একজন গ্রামবাসীর মৃত্যু হয়। এর পরেই ভারত নীলম ভ্যালির ৩টি জঙ্গিঘাঁটি ধ্বংস করে দেয়। সেখানেই নাকি বেশ কয়েকজন জঙ্গি খতম হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। তবে ঠিক কতজন জঙ্গিকে নিকেশ করা গিয়েছে তা এখনও জানা যায়নি। তবে এখনও পর্যন্ত ৫ জন পাক সেনার মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে।

বিপিন রাওয়াত আরও জানান, শনিবার সীমান্ত পেরিয়ে টংধর সেক্টরে জঙ্গিরা ভারতে ঢুকে পড়ার চেষ্টা করে। বাধা দেওয়ায় পাকভূম থেকেই গুলি চালাতে থাকে তারা। পাল্টা জবাব দেয় ভারতও। ফলে ভারতে আর প্রবেশ করতে পারেনি জঙ্গিরা। অন্যদিকে পাকিস্তান দাবি করছে বিনা প্ররোচনাতে ভারত যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘণ করেছে। পাঘটনার পরে সীমান্তে নিরাপত্তা আরও জোরদার করা হয়েছে।

এই ঘটনার উপর নজর রাখছিলেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। বিপিন রাওয়াতের সঙ্গে অনবরত ঘটনা নিয়ে ফোনে কথা বলেছেন বলে জানা গিয়েছে। শনিবার রাত থেকে রবিবার ভোর পর্যন্ত জঙ্গিরা অনুপ্রবেশের চেষ্টা চালিয়ে গিয়েছে বলে জানান সেনা প্রধান।