শ্রীনগর: অল্পের জন্য রক্ষা পেল কাশ্মীর৷ সীমান্ত লাগোয়া বালাকোট সেক্টরে ৯টি শক্তিশালী মর্টার নিষ্ক্রিয় করল ভারতীয় সেনা৷ সেনা সূত্রে খবর মর্টারগুলি ছুঁড়ে ছিল পাকিস্তান সেনা৷ সাধারণ মানুষের ওপর হামলা চালাতেই এতগুলি মর্টার পর পর ছোঁড়ে পাক রেঞ্জার্স৷

এই তাজা মর্টারগুলি নিষ্ক্রিয় করা যথেষ্ট কঠিন ছিল ভারতীয় সেনার কাছে৷ যে কোনও মুহুর্তে সেগুলি বিস্ফোরণ হতে পারত বলে সেনা জানিয়েছে৷ বুধবার থেকেই সীমান্তে ভারি গুলি বর্ষণ করছে পাকিস্তান সেনা৷ সেই সঙ্গে চলছে মর্টার হামলা৷

১২০ মিমির মর্টারগুলি বালাকোট, বাসনি ও সানডোটে গ্রাম থেকে উদ্ধার করা হয়৷ জম্মু কাশ্মীরের পুঞ্চ জেলার মেন্ধর সাব ডিভিশনের এই গ্রামগুলি লক্ষ্য় করেই মর্টার হানা চালাচ্ছে পাকিস্তান বলে সেনা জানিয়েছে৷ শুধু সেনা ছাউনি নয়, এখন পাকিস্তান রেঞ্জার্সের লক্ষ্য সীমান্ত লাগায়ো ভারতীয় গ্রামগুলি বলে দাবি ভারতের৷

এদিকে বুধবারই ভারত-পাকিস্তান সীমান্তের লাইন অফ কন্ট্রোলে ধরা পড়েছে পাক অনুপ্রবেশের চেষ্টা। সেই সঙ্গে ওই অনুপ্রবেশের চেষ্টা ব্যর্থ করতে ভারতীয় সেনাবাহিনীর লাগাতার চালিয়ে গেছে গ্রেনেড হামলা।

ভারতীয় সেনা সূত্রে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, ১২ আর ১৩ সেপ্টেম্বর সীমান্তের ওপার থেকে লাইন অফ কন্ট্রোল পেরিয়ে হাজিপুরে অনুপ্রবেশের চেষ্টা চালায় পাকিস্তান। সেনা সূত্রে খবর, পাকিস্তানের বিএটি অথবা এসএসজি তরফে এই অনুপ্রবেশের চেষ্টা চালানো হয়।

উরি, কেরান, পুঞ্চ, মেন্ধার এবং নওশেরা সেক্টরের কাছাকাছি এই ছবি উঠে এসেছে। ওই একই দলে পাকিস্তানের স্পেশাল সার্ভিস গ্রুপ রয়েছে বলেই জানা গেছে।