নেপিয়ার: বিরাটদের দেখানো পথেই কিউয়িদের বিরুদ্ধে সিরিজের প্রথম ওয়ান ডে ম্যাচে জয় তুলে নিলেন মিতালিরাও। বুধবার নেপিয়ারের ম্যাকিলিন পার্কে দুরন্ত অলরাউন্ড পারফরম্যান্সে কেন উইলিয়ামসনদের আট উইকেটে দুরমুশ করে কোহলিব্রিগেড। এদিন উইমেন ইন ব্লু’র খেলাতেও সেই ছাপ স্পষ্ট। বোলারদের দুরন্ত পারফরম্যান্সে কিউয়িদের স্বল্প রানে গুটিয়ে দেওয়ার পর ব্যাট হাতে মন্ধনা-রডরিগেজের যুগলবন্দিতে ৯ উইকেটে জয় হাসিল করে ভারতের প্রমিলা ব্রিগেড। ব্যাট হাতে ১০৫ রানের ঝকঝকে ইনিংস খেলেন ওপেনার স্মৃতি মন্ধনা।

আইসিসি উইমেনস চ্যাম্পিয়নশিপের অন্তর্গত প্রথম একদিনের ম্যাচে নেপিয়ারে এদিন টসে জিতে কিউয়িদের প্রথমে ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানান মিতালি৷ শুরুটা মন্দ না হলেও নিয়মিত অন্তরে উইকেট খোয়ানোর মাশুল দিয়ে ৪৮.৪ ওভারে ১৯২ রানে গুটিয়ে যায় নিউজিল্যান্ডের ইনিংস৷ যদিও ম্যাচে একগুচ্ছ সহজ ক্যাচ না ছাড়লে কিউয়িদের আরও কম রানে অলআউট করতে পারত ভারতের মেয়েরা৷

নিউজিল্যান্ডের হয়ে সর্বোচ্চ ৩৬ রান করেন ওপেনার সুজি বেটস। প্রথম উইকেটের জুটিতে ৬১ রান উঠলেও এরপর নিয়মিত ব্যবধানে উইকেট খোয়াতে থাকে ব্ল্যাক ক্যাপসরা। কিউয়িদের হয়ে অ্যামি স্যাটারওয়েট দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩১ রান করে সাজঘরে ফেরেন৷ অ্যামেলিয়া ফেরেন ২৮ রান করে। ভারতের হয়ে তিনটি করে উইকেট নেন একতা ও পুণম৷ দু’টি উইকেট নেন দীপ্তি৷ একটি উইকেট শিখার৷ ফিল্ডারদের হঠকারীতায় উইকেট না পেলেও কৃপণ বোলিং করেন ঝুলন গোস্বামী।

১৯৩ রানের লক্ষ্যমাত্রা তাড়া করতে নেমে নিউজিল্যান্ড বোলারদের সাধারন স্তরে নামিয়ে আনেন দুই ভারতীয় ওপেনার স্মৃতি মন্ধনা ও জেমিমা রডরিগেজ। কিউয়ি বোলারদের রীতিমত শাসন করে ওয়ান ডে ক্রিকেটে চতুর্থ শতরানটি পূর্ণ করেন আইসিসি ক্রিকেটার অফ দ্য ইয়ার মন্ধনা। ৯৪ বলে ৮১ রানের ইনিংস খেলে তাঁকে যথাযোগ্য সহযোগীতা করেন বছর আঠারোর জেমিমা। ১০৪ বলে ১০৫ রান করে জয়ের অদূরে দাঁড়িয়ে মন্ধনা আউট হলেও অপরাজিত থেকে যান রডরিগেজ। প্রথম উইকেটে মন্ধনা-রডরিগেজের ১৯০ রানের বিরাট পার্টনারশিপ ভারতের জয়ের ভিত প্রশস্ত করে দেয়।

মন্ধনা আউট হওয়ার পর দীপ্তি শর্মাকে সঙ্গে নিয়ে মাত্র ৩৩ ওভারে দলকে লক্ষ্যমাত্রায় পৌঁছে দেন জেমিমা। সহজ জয়ে তিন ম্যাচের ওয়ান ডে সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেলেন মিতালিরা। ২৯ জানুয়ারি মাউন্ট মাউনগানুইয়ে সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ান ডে-তে মুখোমুখি হবে দুই দল।