মুম্বই: হাতে অল্প রানের পুঁজি নিয়েও ইংল্যান্ড শিবিরে পালটা হামলা ভারতের৷ মুলত ভারতীয় বোলারদের নিয়ন্ত্রিত ও আগ্রাসী মেজাজের সামনে অসহায় আত্মসমর্পণ ব্রিটিশ ব্যাটিং লাইনআপের৷

আইসিসি ওমেনস চ্যাম্পিয়নশিপের অন্তর্গত তিন ম্যাচের ওয়ান ডে সিরিজে ইংল্যান্ডের মহিলা ক্রিকেট দলের বিরুদ্ধে লড়াই ছিল ভারতের মেয়েদের৷ মুম্বইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে প্রথম একদিনের ম্যাচে টসে হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ভারত ৪৯.৪ ওভারে ২০২ রানে অলআউট হয়ে যায়৷ জবাবে ব্যাট করতে নেমে ইংল্যান্ডের ইনিংস ৪১ ওভারে গুটিয়ে যায় মাত্র ১৩৬ রানে৷ লো স্কোরিং ম্যাচে ৬৬ রানের দুরন্ত জয় তুলে নিয়ে ভারত ১-০ এগিয়ে যায় সিরিজে৷

আরও পড়ুন: ৬ ব্যাটসম্যান শূন্য রানে আউট, তবুও জয়ী দল

শুরুটা মন্দ না হলেও হরমনপ্রীত কউরের অনুপস্থিতিতে মিডল অর্ডার ব্যাটারদের ব্যর্থতায় বড় রানের ইনিংস গড়তে ব্যর্থ হয় ভারত৷ শুরুতে জেমিমা রডরিগেজ, মাঝে মিতালি রাজ ও লোয়ার অর্ডারে ঝুলন গোস্বামীর মিলিত প্রচেষ্টায় কোনও রকমে দু’শোর গণ্ডি টপকাতে সক্ষম হয় ভারতীয় দল৷

জেমিমা রডরিগেজ ও স্মৃতি মন্ধনার ওপেনিং জুটি ৬৯ রানের পার্টনারশিপ গড়ে৷ আইসিসি’র সেরা ওয়ান ডে ব্যাটার মন্ধনা ব্যক্তিগত ২৪ রান আউট হওয়ার পরেই ধস নামে ভারতের ডপ-মিডল অর্ডারে৷ দীপ্তি শর্মা ৭ রান করে আউট হন৷ রডরিগেজ ব্যক্তিগত হাফসেঞ্চুরির ঠিক দোরগোড়া থেকে ফিরে আসেন৷ তিনি দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৪৮ রান করেন৷

আরও পড়ুন: রাহুল-পান্ডিয়া বিতর্কের সমাধান ঘটানোই চ্যালেঞ্জ নতুন অম্বাডসম্যানের

হরমনপ্রীতের জায়গায় দলে ঢোকা হারলিন দেওল মাত্র ২ রান করে আউট হন৷ খাতা খুলতে পারেননি মোনা মেশরাম৷ মিতালি রাজ ৪৪ রানের লড়াকু ইনিংস খেলে সাজঘরে ফেরেন৷ তানিয়া ভাটিয়া (২৫), শিখা পান্ডে (১১) ও একতা বিস্ট (০) রান আউট হয়ে ক্রিজ ছাড়েন৷ ঝুলন গোস্বামী ৩টি চার ও ১টি ছক্কার সাহায্যে ৩৭ বলে ৩০ রান করেন৷ ইংল্যান্ডের হয়ে দু’টি করে উইকেট নেন জর্জিয়া এলউইস, নাতালি শভার ও সোফি একলেসস্টোন৷ একটি উইকেট নিয়েছেন অ্যানা শ্রুবসোল৷

ইংল্যান্ড শুরু থেকেই নিয়মিত অন্তরে উইকেট হারাতে থাকে৷ নাতালি শিয়েভার ও ক্যাপ্টেন হিথার নাইট ছাড়া আর কোনও ব্রিটিশ ব্যাটারই প্রতিরোধ গড়তে পারেননি৷ নাতালি ৪৪ রান করে রানআউট হন৷ নাইট ৩৯ রান করে নটআউট থাকেন৷ ভারতের হয়ে একতা বিস্ট ২৫ রানের বিনিময়ে ৪ উইকেট দখল করেন৷ দু’টি করে উইকেট নিয়েছেন দীপ্তি শর্মা ও শিখা পান্ডে৷ অত্যন্ত কৃপণ বোলিং করা ছাড়াও একটি উইকেট নিয়েছেন ঝুলন গোস্বামী৷ ম্যাচের সেরা হয়েছেন একতা৷