বার্মিংহ্যাম: জিতলে সেমিফাইনালের টিকিট নিশ্চিত৷ তবে হারলেও টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে যেতে হবে, এমনটা নয়৷ ইতিমধ্যেই ১১ পয়েন্ট সংগ্রহ করা টিম ইন্ডিয়ার হাতে থাকছে আরও একটি ম্যাচ৷ তবে বাংলাদেশের সামনে এই ম্যাচটি কার্যত ডু অর ডাই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে৷ জিতলে শেষ চারের টিকিট নিশ্চিত নয়৷ তবে হারলে টাইগারদের বিদায় নিতে হবে বিশ্বকাপ থেকে৷

এই অবস্থায় মুখোমুখি সাক্ষাতে এজবাস্টনে টস ভাগ্য সঙ্গ দেয় বিরাট কোহলিকে৷ স্বাভাবিকভাবেই টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন কোহলি৷ নিজের সিদ্ধান্তের স্বপক্ষে বিরাট বলেন, ‘ব্যবহৃত পিচ৷ এখানে শেষ ম্যাচে খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে আমাদের৷ পরের দিকে পিচ তুলনায় স্লো হয়ে যায়৷ তাই প্রথমে ব্যাট করে নেওয়াই ভালো৷’ বাংলা অধিনায়ক মাশরাফিও টস জিতলে প্রথমে ব্যাটিং করতেন বলে জানান৷

দু’দলই এই ম্যাচের প্রথম একাদশে একজোড়া করে বদল করে৷ ভারত কেদার যাদবের জায়গায় সুযোগ করে দেয় দীনেশ কার্তিককে৷ কুলদীপ যাদবের পরিবর্তে জায়গা করে দেয় চোট সারিয়ে মাঠে ফেরা ভুবনেশ্বর কুমারকে৷ অর্থাৎ বাংলাদেশের বিরুদ্ধে তিন জন বিশেষজ্ঞ পেসারে দল সাজায় ভারত৷ অন্যদিকে, ফিটনেস টেস্টে পাশ করতে না পারায় মাহমুদুল্লাহ ছিটকে যান দল থেকে৷ তাঁর জায়গায় সাব্বির রহমান দলে ঢোকেন৷ মেহেদি হাসানের জায়গায় সুযোগ পেয়েছেন রুবেল হোসেন৷

বিশ্বকাপে ভারত-বাংলাদেশ লড়াইয়ের ইতিহাস বেশি পুরনো নয়৷ ১৯৯৯-এ বিশ্বকাপ অভিষেক হলেও ভারত-বাংলাদেশ সাক্ষাত হয়েছিল ২০০৭ ক্যারিবিয়ান বিশ্বকাপে৷ এ পর্যন্ত তিনবারের সাক্ষাতে দু’বার জিতেছে ভারত আর একবার জিতেছে বাংলাদেশ৷ অর্থাৎ এ পর্যন্ত বাংলাদেশ পাঁচটি বিশ্বকাপ খেললেও ভারতের সঙ্গে তাদের দেখা হয়েছে তিনবার৷ ১৯৯৯ এবং ২০০৩ বিশ্বকাপে মুখোমুখি হয়নি এই দুই প্রতিবেশী দেশ৷

চলতি বিশ্বকাপের লিগ ম্যাচে মুখোমুখি হওয়ার আগে ওয়ার্ম-আপ ম্যাচে সাক্ষাত হয়ে ভারত ও বাংলাদেশের৷ কার্ডিফের সোফিয়া গার্ডেন্সে বেঙ্গল টাইগার্সকে ৯৫ রানে হারায় বিরাটবাহিনী৷ প্রথম ব্যটিং করে লোকেশ রাহুল ও মহেন্দ্র সিং ধোনির জোড়া সেঞ্চুরিতে ৩৫৯ রান তুলেছিল ভারত৷ রান তাড়া করতে নেমে ২৬৪ রানে শেষ হয়ে যায় বাংলাদেশ ইনিংস৷

ভারতীয় দল: রোহিত শর্মা, লোকেশ রাহুল, বিরাট কোহলি (ক্যাপ্টেন), ঋষভ পন্ত, দীনেশ কার্তিক, মহেন্দ্র সিং ধোনি (উইকেটকিপার), হার্দিক পান্ডিয়া, মহম্মদ শামি, ভুবনেশ্বর কুমার, যুবেন্দ্র চাহাল এবং জসপ্রীত বুমরাহ৷

বাংলাদেশ: তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, শাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম (উইকেটকিপার), লিটন দাস, রুবেল হোসন, মোসাদ্দেক হোসেন, সাব্বির রহমান, মহম্মদ সইফুদ্দিন, মাশরাফি মোর্তাজা (ক্যাপ্টেন) ও মুস্তাফিজুর রহমান৷

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ