আমদাবাদ: শেষ টেস্টে ইংল্যান্ডকে ইনিংস ও ২৫ রানে হারিয়ে ৩-১ সিরিজ জিতে নিয়েছে ভারত৷ সেই ঘরের মাঠে টানা ১৩টি টেস্ট সিরিজ জয়ের নজির গড়েছে টিম ইন্ডিয়া৷ বিরাট কোহলির নেতৃত্বে অস্ট্রেলিয়ার রেকর্ড ভেঙে নতুন মাইলস্টোন স্থাপন করল টিম ইন্ডিয়া৷

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজের পাশাপাশি আইসিসি ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালের যোগ্যতাঅর্জন করে ভারত৷ জো রুটদের বিরুদ্ধে সিরিজের শেষ টেস্টে ড্র করলেই টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে ওঠার ছাড়পত্র পেয়ে যেত টিম কোহলি৷ কিন্তু ইংল্যান্ডকে দুরমুশ করে হাসতে হাসতে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে পৌঁছে যায় ভারত৷ একই সঙ্গে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের সফলতম দল হিসেবে ফাইনালে জায়গা করেন নেয় কোহলি অ্যান্ড কোং৷

কোহলির নেতৃত্বে ভারতের এই জয়যাত্রা শুরু হয়েছিল ২০১৩ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে৷ ঘরের মাঠে অজিদের ৪-০ হারিয়েছিল কোহলিবিগ্রেড৷ তারপর আর পিছনে তাকাতে হয়নি৷ জয়ের ধারা অব্যহত রাখে টিম ইন্ডিয়া৷ শুধু তাই নয়, ২০১৯-এর অগস্ট থেকে শুরু হওয়া আইসিসি ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে সবচেয় সফলতম দল ভারত৷ ১৭টি টেস্টের মধ্যে ১২টিতে জয় পেয়েছে টিম কোহলি৷ হেরেছে মাত্র ৪টি টেস্ট৷ আর ড্র করেছে মাত্র একটি টেস্ট৷ বিরাটদের ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ সফর শুরু হয়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে৷ ক্যারিবিয়ানদের বিরুদ্ধে ২-০ সিরিজ জিতেছিল টিম কোহলি৷

তারপর দক্ষিণ আফ্রিকা ও বাংলাদেশকে হোয়াইটওয়াশ করে টিম ইন্ডিয়া৷ প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে ৩-০ এবং বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ২-০ সিরিজ জেতে ভারত৷ টানা সাতটি টেস্ট জয়ের পর হারের মুখ দেখেন বিরাটরা৷ নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজ হারে বিরাটবাহিনী৷ কিউয়িদের বিরুদ্ধে দু’টি টেস্ট হারে টিম কোহলি৷ করোনা অতিমারীর আবহে অস্ট্রেলিয়া সফরে প্রথম টেস্ট হেরে আরও ধাক্কা খায় ভারত৷ অ্যাডিলেডে প্রথম টেস্ট হারে কোহলি অ্যান্ড কোং৷ কিন্তু তারপর দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে সিরিজ জিতে নেয় টিম ইন্ডিয়া৷ পিতৃত্বকালীন ছুঁটি নিয়ে কোহলি দেশে ফিরলে অজিদের বিরুদ্ধে সিরিজের বাকি তিনটি টেস্টে ভারতকে নেতৃত্বে দেন অজিঙ্ক রাহানে৷ মুম্বইকরের নেতৃত্বে তিনটি টেস্টের মধ্যে একটি ড্র ও দু’টি জিতে অজিদের বিরুদ্ধে সিরিজ পকেটে পুরে ভারত৷

নেতৃত্বে ফিরে ঘরের মাঠে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ভারতকে সিরিজ জেতান কোহলি৷ ইংরেজদের বিরুদ্ধে চার টেস্টের সিরিজে ৩-১ জিতে নেয় কোহলি অ্যান্ড কোং৷ জো রুটদের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্ট ২২৭ রানে হারের পর দুর্দান্ত কামব্যাক করে বিরাট-রাহানেরা৷ চিপকেই দ্বিতীয় টেস্টে ইংল্যান্ডকে ৩১৭ রানে হারায় ভারত৷ তারপর আমদাবাদে পিঙ্ক বল টেস্টে ১০ উইকেটে জয় এবং শেষ টেস্টে ইনিংস ও ২৫ রানে জয়৷ শেষ দু’টি তিনেরও কম সময়ে জিতে নেয় ভারত৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।