ঢাকা: ভারত নতুন করে ৫০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ দেবে বাংলাদেশকে। ২০১৮-র জুলাইয়ের মধ্যে ভেড়ামারা-ভেরামপুরের মধ্যে দিয়ে এই বিদ্যুৎ সাপ্লাই দেওয়া হবে। এমনটাই জানিয়েছেন, ঢাকার ভারতীয় রাষ্ট্রদূত হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা।

বৃহস্পতিবার ঢাকার বসুন্ধরায় ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশনাল সিটিতে এক অনুষ্ঠানে গিয়ে একথা বলেন তিনি। সেখানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের প্রশাসনিক আধিকারিকেরা।

দীপাবলির আগে ঢাকা সফরের সময় ভারতের অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি জানান, ভারতের পর্যাপ্ত বিদ্যুৎ রয়েছে, বাংলাদেশ চাইলে তা নিতে পারে। মঙ্গলবার ঢাকা ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার্স অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজ (এফবিসিসিআই) আয়োজিত এক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। অরুণ জেটলি বলেন, ভারত একটি বিরাট বাজার। এবং সেখানে বিনিয়োগের জন্য উদার পরিবেশ রয়েছে। তাই বাংলাদেশের বিনিয়োগকারীদের জন্য ভারতে বিনিয়োগের সুযোগ উন্মুক্ত। আর ভারতীয় ব্যবসায়ীরা এরই মধ্যে বাংলাদেশে বিনিয়োগ করছেন।

বাংলাদেশের সংবাদ মাধ্যম জানাচ্ছে, গত এপ্রিলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নয়াদিল্লি সফরকালে বাংলাদেশের জন্য ৪৫০ কোটি মার্কিন ডলারের ঋণ ঘোষণা করা হয়েছিল৷ ভারত ও বাংলাদেশের অর্থমন্ত্রীদের উপস্থিতিতে এই ঋণ বাস্তবায়নের জন্য একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এর ফলে গত ৬ বছরে বাংলাদেশকে দেয়া ভারতের মোট ঋণরেখা ৮০০ কোটি ডলারে গিয়ে দাঁড়াবে। চুক্তিটি স্বাক্ষরিত হলে বাংলাদেশে বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্পের বাস্তবায়ন করা সম্ভব।