নয়াদিল্লিঃ  প্রথমবারে চেষ্টায় মঙ্গলে যান পাঠিয়েছে ইসরো।  শুধু তাই নয়, একসঙ্গে ১০০-বেশি স্যাটেলাইট পাঠিয়ে বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে ভারতের এই মহাকাশ সংস্থা।  এবার ইসরোর লক্ষ্য চাঁদ।  সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী বছরের শুরুতেই চাঁদের মাটিতে পা রাখতে চলেছে ভারত।  আর সেই লক্ষ্যে ইসরোতে চলছে এখন জোর তোড়জোড়।  তাহলে আর কি! হাতে আর মাত্র একটা বছরের অপেক্ষা! ভারতের চাঁদ দখলে অবশ্যই কাউন্টডাউন শুরু করে দেওয়া যেতেই পারে।

ভারতের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরোর চেয়ারম্যান এ এস কিরণ কুমার জানিয়েছেন, দ্বিতীয় চন্দ্রাভিযানের লক্ষ্যে দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলেছে ভারত।  আগামী বছরের প্রথম দিকেই ‘চন্দ্রযান-২’ রওনা হয়ে যেতে পারে চন্দ্র জয়ের লক্ষ্যে।  সম্প্রতি ভেলস বিশ্ববিদ্যালয়ের বার্ষিক সমাবর্তন অনুষ্ঠানে যোগ দেন ইসরোর চেয়ারম্যান।  সেখানেই নিজের বক্তব্য রাখতে গিয়ে এমনটাই জানিয়েছেন।

শুধু তাই নয়, ইসরো চেয়ারম্যান এ এস কিরণ কুমার জানিয়েছেন, ওই অভিযানে চাঁদের কক্ষপথে ঘোরার জন্য একটি অরবিটার মহাকাশযান থাকবে।  সেই সঙ্গে চাঁদের মাটিতে নামার জন্য একটি ‘ল্যান্ডার’ থাকবে।  চাঁদের মাটিতে নামার পরে ঘোরাফেরার জন্য থাকবে আরও একটি ‘রোভার’ মহাকাশযানও।  চাঁদে নামার জন্য তৈরি মহাকাশযানটির পরীক্ষানিরীক্ষার কাজ জোর কদমে চলছে বলেই জানিয়েছেন তিনি।  ইসরো চেয়ারম্যানের দাবি, একেবারে সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে ‘চন্দ্রযান-২’-এর জন্য একটি ইঞ্জিন বানিয়েছে ইসরো।  যদিও এখনও এই ইঞ্জিনকে নিয়ে আরও পরীক্ষানিরীক্ষা প্রয়োজন বলেই জানিয়েছেন ইসরো।