নয়াদিল্লি: বিশ্বের মধ্যে সবথেকে বেশি ইন্টারনেট গ্রাহক রয়েছে ভারতে। আর রিলায়েন্স জিও আসার পর সেই ইন্টারনেটের সংজ্ঞাই কার্যত পাল্টে গিয়েছে। 4G স্পিড, চোখের নিমেষে ডাউনলোড, এতেই মজে রয়েছে ভারতের ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা। জিও-র সঙ্গে পাল্লা দিতে প্রত্যেকটা সংস্থাই দিচ্ছে ব্যাপক স্পিড। তবে এবার নাকি নেট দুনিয়ায় ম্যাজিক দেখাবে ইসরো। নেট স্পিড হবে ১০০ জিবিপিএস।

প্রতি সেকেন্ডে ১০০ জিবি! শুনতে বিস্ময়কর লাগলেও এমনটাই দাবি করেছেন খোদ ইসরোর চেয়ারম্যান কে সিভান। বর্তমানে ইন্টারনেটের গতিতে ভারতের স্থান বিশ্বের মধ্যে ১০৯ নম্বরে।তবে এবার সেটা অতীত হয়ে যাবে। কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারী একেবারে হাওয়ার গতিতে ছুটবে ইন্টারনেট।

এক কনভোকেশন সেরিমনিতে গিয়ে ভারতের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরোর চেয়ারম্যান দাবি করেন, দুর্দান্ত নেট স্পিড আর ভারতীয়দের কাছে অধরা থাকবে না। এবছরেই হবে লক্ষ্যপূরণ। কেবলমাত্র তিনটি স্যাটেলাইট লঞ্চ করার অপেক্ষা। আগামী এক বছরের মধ্যেই তিনটি GSAT কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট লঞ্চ করা হবে। এবছরেই লঞ্চ করা হবে GSAT-11 ও GSAT-29, আর ২০১৯-এ পাঠানো হবে GSAT-20.

এই তিন স্যাটেলাইট মিলে গোটা দেশে ১০০ জিবিপিএস নেট স্পিড দেবে বলেই উল্লেখ করেছেন কে সিভান।

চিনে নিন এই তিন স্যাটেলাইট:

GSAT-11 is an advanced communication satellite employing a new class of bus weighing 4000-6000 Kg. It includes a new Ka x Ku-Band Forward Link Transponders and Ku x Ka band Return Link Transponders for high speed data connectivity.

GSAT-29 is configured around ISRO’s Enhanced I-3K Bus and will be the payload for second developmental flight of GSLV-MkIII. It carries Ka x Ku multi-beam and optical communication payloads for the first time. The mission targets for Village Resource Centres (VRC) in rural areas to bridge the digital divide.

GSAT 20 is reportedly built on the I-6K unified modular bus and features a Ka-band high-throughput communications payload with 70 Gbps throughput utilizing multiple spot beams providing broadband services across the Indian region.