নয়াদিল্লি: ভারতের চিন্তা বাড়িয়ে ভারত মহাসাগরে যৌথ মহড়া দিল পাকিস্তান ও মালদ্বীপ৷ মালদ্বীপের বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল বা ইইজেড এলাকায় পাকিস্তানের সঙ্গে যৌথভাবে নৌ-মহড়া দিয়েছে মালদ্বীপ৷

এরআগে, পাকিস্তানের সেনাপ্রধান জেনারেল আসিম কমর জাভেদ বাজওয়া মালদ্বীপ সফরে যান৷ এই সফরেই যৌথ মহড়া করতে সম্মত হয় দুই দেশ৷ বাজওয়ার আগে কোনও সেনাপ্রধান মালদ্বীপ সফর করেননি৷

মালদ্বীপে ৪ ফেব্রুয়ারি ৪৫ দিনের স্থায়ী জরুরি অবস্থার পর তার সফরটিই ছিল সর্বোচ্চ মর্যাদার কোনো বিদেশির সফর। সফরে তিনি মালদ্বীপের প্রতিরক্ষামন্ত্রী আদম শরিফ উমার, প্রেসিডেন্ট আবদুল্লাহ ইয়ামিন আবদুল গাইয়ুমের সাথেও সাক্ষাৎ করেন।

মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট দফতর থেকে জারি করা ইস্তেহারে তাদের মধ্যে ১ এপ্রিলের বৈঠকে আলোচ্যসূচি সম্পর্কে কিছু বলা হয়নি। এতে উল্লেখ করা হয়, ইয়ামিন আশা প্রকাশ করেছেন, মালদ্বীপ ও পাকিস্তান অভিন্ন স্বার্থ নিয়ে দ্বিপাক্ষিক ও আন্তর্জাতিক ইস্যুতে একসঙ্গে কাজ করে যাবে৷ এতে দুদেশের সম্পর্ক আরও মজবুত হবে বলে আসা করা হয়৷

জবাবে জেনারেল বাজওয়া বলেন, দুই দেশের উচিত তাদের বন্ধুত্ব আরও জোরদার করা। তবে পাকিস্তানি জেনারেলের সঙ্গে মালদ্বীপের প্রতিরক্ষামন্ত্রীর বৈঠকেই উদ্বেগ বেড়েছে দিল্লির৷
মালদ্বীপের প্রতিরক্ষা ও জাতীয় নিরাপত্তা মন্ত্রকের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মালদ্বীপের প্রতিরক্ষামন্ত্রী আদম শরিফ উমার ও পাকিস্তানি সেনা প্রধানের বৈঠকে সামরিক প্রশিক্ষণ, চিকিৎসা সহায়তা ও মালদ্বীপের বিশেষ অর্থনৈতিক জোনে যৌথভাবে টহলদানের বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে৷

এখনও পর্যন্ত শুধু ভারতই মালদ্বীপের সাথে ইইজেডে যৌথ টহল দিয়েছে৷ ইইজেডের আয়তন প্রায় ৯ লাখ বর্গকিলোমিটার। এলাকাটির ওপর নজরদারির জন্য ভারত তার নৌসেনা ও বায়ুসেনাকে ব্যবহার করে৷