নয়াদিল্লী: MH-60 রোমিওকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে কিনতে চায় ভারতীয় প্রতিরক্ষা দফতর৷ হেলিকপ্টারের দাম দুই বিলিয়ন ডলার৷ শুক্রবার প্রতিরক্ষা দফতর থেকে এই খবর মিলেছে৷ রোমিও সমুদ্রের তলায় লুকিয়ে থাকা শত্রুর সাবমেরিন খুঁজে বের করায় পারদর্শী৷ প্রায় এক দশক ধরে এই ধরণের হেলিকপ্টারের প্রয়োজন রয়েছে ভারতে৷

মনে করা হচ্ছে কয়েক মাসের মধ্যেই ইউএসের সঙ্গে কথাবার্তা হয়ে চুক্তিটি চূড়ান্ত হয়ে যাবে বলে আশা প্রকাশ করা হচ্ছে৷ সূত্র মারফত জানা গিয়েছে সিঙ্গাপুরে একটি আঞ্চলিক শীর্ষ সম্মেলনে আমেরিকার ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর তাঁর এব্যাপারে একটি সফল বৈঠক হয়েছে৷

ভারত ইতিমধ্যেই নিজেদের চাহিদা অনুযায়ী মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কাছে একটি ‘জরুরি চিঠি’ ও পাঠিয়েছে বলে খবর৷ ‘জরুরি চিঠি’ তে ২৪ টি ক্ষমতা সম্পন্ন MH 60 রোমিও সি-হক হেলিকপ্টারের প্রয়োজনের কথা বলা হয়েছে৷

সাম্প্রতিক কয়েকমাস ধরে ভারত ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যেকার প্রতিরক্ষা বন্ধনের বেশ উন্নতি হয়েছে৷ আমেরিকার উচ্চ-প্রযুক্তির সামরিক কারখানাগুলির দরজা ভারতের প্রতিরক্ষার প্রয়োজনে খুলে দিয়েছে ট্রাম্প প্রশাসন৷

সিঙ্গাপুরে আঞ্চলিক শীর্ষ সম্মেলনে ইউএস ও ভারতের দ্বিপাক্ষিক প্রতিরক্ষা বিষয়ক সম্পর্কটি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ছিল৷ এই বিষয় নিয়েই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং ইউএস প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের বৈঠক হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে আর্জেন্টিনার G20 সামিটে৷ যা হওয়ার কথা ৩০শে ডিসেম্বর ও ১লা জানুয়ারি৷ যদিও উভয়পক্ষের কেউই এখনও বৈঠকের বিষয়টি নিশ্চিত করেনি।

সূত্র মারফত খবর মিলেছে, MH-60 রোমিও চুক্তিটির অফসেটের উপর গুরুত্ব দিতে চাইছে ভারত৷ সূত্র মারফত ইঙ্গিত মিলেছে রোমিওকে কেনার পাশাপাশি ভারত চায় ১২৩টি হেলিকপ্টার ভারতেই নির্মাণ করতে৷

বর্তমানে লকহেড মার্টিনের MH-60R সিহক হেলিকপ্টারটিকে বিশ্বের সবচেয়ে উন্নতমানের সামুদ্রিক হেলিকপ্টার হিসাবে বিবেচনা করা হয়।

শিল্প বিশেষজ্ঞদের মতে, এটি সবচেয়ে শক্তিশালী হেলিকপ্টার যা বিধ্বংসী, ক্রুজার ও বিমানবাহীগুলির জন্য সবচেয়ে সক্ষম নৌ হেলিকপ্টার৷ MH-60 রোমিও ভারতীয় প্রতিরক্ষাকে আরও শক্তিশালী করবে৷ চিনের ভারত মহাসাগরের উপর ক্ষমতা কায়েম করার চেষ্টাকে ও আক্রমণাত্মক আচরণকে শক্ত হাতে আটকাবে এই হেলিকপ্টার৷