নয়াদিল্লি: এর আগে দ্বিপাক্ষিক স্তরে পাকিস্তানের বিতর্কিত ম্যাপের বিরোধিতা জানিয়ে ছিল ভারত। তবে এবার আন্তর্জাতিক মঞ্চে সুর চড়াল নয়াদিল্লি। সাংহাই কোঅপারেশন অর্গানাইজেশনের বিশেষ বৈঠক ছেড়ে বেড়িয়ে এসে ভারত বুঝিয়ে দিল কোনওভাবেই এই বিতর্কিত ম্যাপ নিয়ে আলোচনা চায় না তারা।

এসসিওর ন্যাশনাল সিকিওরিটি অ্যাডভাইজারদের বিশেষ বৈঠক শুরু হয়। স্বাভাবিকভাবেই ভার্চুয়াল এই বৈঠকে উপস্থিত ছিল ভারত ও পাকিস্তান। এই বৈঠকেই পাকিস্তান নিজেদের বিতর্কিত ম্যাপ প্রকাশ করে, যে ম্যাপ নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই আপত্তি জানিয়ে আসছে ভারত।

মঙ্গলবার ফের ওই ম্যাপ আন্তর্জাতিক মঞ্চে প্রকাশ করে পাকিস্তান। প্রতিবাদে বৈঠক ছেড়ে বেড়িয়ে যায় ভারত। তবে এই বৈঠকে যে আর ভারত থাকবে না, সে ব্যাপারে রাশিয়াকে অবগত করা হয়। ভারতের প্রতিনিধি এই সম্মেলনের আয়োজক রাশিয়াকে গোটা বিষয়টি জানান, তারপরেই বৈঠক ছেড়ে বেড়িয়ে যান।

পরে ভারতের বিদেশমন্ত্রক গোটা ঘটনার সমালোচনা করে। বিদেশমন্ত্রকের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে একটি বিতর্কিত ইস্যুকে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে তুলে ধরে আয়োজক দেশ রাশিয়ার অবমাননা করেছে পাকিস্তান।

এক বিবৃতি প্রকাশ করে ভারত জানিয়েছে পাকিস্তানের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা ইচ্ছাকৃতভাবে গোটা ঘটনাটি ঘটিয়েছেন। এই বৈঠকে কোনও বিতর্কিত ইস্যু তোলা যাবে না বলে আয়োজক রাশিয়া পূর্ব উল্লিখিত শর্তে জানিয়েছিল। সেই শর্ত ভেঙেছে পাকিস্তান। আয়োজক দেশকে এখানে অপমান করা হয়েছে।

বৈঠকের মূল লক্ষ্য পাকিস্তান ঘুরিয়ে দিতে চেয়েছে বলে অভিযোগ করে এদিন ভারত জানায়, বৈঠক ত্যাগ করার ভারতের সিদ্ধান্তকে সমর্থন করেছে রাশিয়া। আয়োজক দেশকে জানিয়েই বৈঠক ত্যাগ করেছে ভারত। পরে সংবাদসংস্থা এএনআই জানিয়েছে পাকিস্তানের এই পদক্ষেপকে উসকানিমূলক ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে সমালোচনা করেছে রাশিয়া। এই ধরণের ঘটনাকে রাশিয়া সমর্থন করে না বলেও জানানো হয়েছে।

এই বৈঠকে ভারতের বেড়িয়ে যাওয়ার ঘটনাকে দুঃখজনক বলেও ব্যাখ্যা করেছে রাশিয়া। সেদেশের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জানান পাকিস্তানের এই আচরণে ভারতের পাশে রয়েছে রাশিয়া। তবে আশা করা যায় সাংহাই কোঅপারেশন অর্গানাইজেশনের অন্যান্য কাজে বা বৈঠকে এই ঘটনা প্রভাব ফেলবে না। এই ইস্যুতে ভারতকে অন্যান্য বৈঠকে যোগ দেওয়ার আবেদন করা হয়েছে রাশিয়ার পক্ষ থেকে।

উল্লেখ্য, অগাষ্ট মাসেই ভারতের একাধিক অংশ মানচিত্রে যুক্ত করে পাকিস্তান। প্রকাশিত হয় সেই বিতর্কিত ম্যাপ। এতদিন পর্যন্ত পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরের অংশকে আনুষ্ঠানিকভাবে নিজেদের অংশ বলে দাবি করত না। গিলগিট-বালতিস্তানকে নিজেদের বলে উল্লেখ করলেও বাকি অংশকে পাকিস্তান ‘আজাদ কাশ্মীর’ বলে উল্লেখ করত। এই ম্যাপে সেই সব অংশকেই নিজেদের বলে দাবি করে পাকিস্তান।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।