ম্যাঞ্চেস্টার: রবিবাসরীয় ভারত-পাক মহারণের দিকেই তাকিয়ে ক্রিকেটবিশ্ব৷ এই ম্যাচই বিশ্বকাপের ইউএসপি৷ এখনও পর্যন্ত বিশ্বকাপে ৬ বার মুখোমুখি হয়েছে ভারত ও পাকিস্তান৷ কিন্তু প্রতিবারই বাজিমাত করেছে ‘মেন ইন ব্লু’৷ রবিবার ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে এই হাইভোল্টেজ ম্যাচে বিরাট কোহলি ও মহম্মদ আমেরের লড়াইয়ের দিকেই তাকিয়ে রয়েছে ক্রিকেটপ্রেমীরা৷

এই মুহূর্তে বিশ্বের সেরা ব্যাটসম্যান কোহলি ও অন্যতম সেরা পেসার আমেরের বাইশ গজে লড়াই দেখতে মুখিয়ে রয়েছে ক্রিকেটবিশ্ব৷ কিন্তু ভারত-পাকিস্তান মেগা যুদ্ধেও ‘ভিলেন’ হতে পারে বৃষ্টি। পূর্বাভাস অন্তত পুরোপুরি আশ্বস্ত করতে পারছে না ক্রিকেট অনুরাগীদের। প্রায় ন’মাস বাদে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সার্কিটে মুখোমুখি হতে চলেছে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দুই দেশ৷ আর আইসিসি’র ইভেন্ট ধরলে সময়টা দু’বছর। অর্থাৎ ২০১৭ ওভালে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালে দেখা সাক্ষাত হয়েছিল ভারত-পাকিস্তানের৷ ভারতকে হারিয়ে অবশ্য প্রথমবার চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জয়ের স্বাদ পায় পাকিস্তান৷

তবে এখনও পর্যন্ত ভারত-পাক লড়াইয়ে কোহলি-আমের সাক্ষাত হয়েছে চারটি ওয়ানে ডে এবং দু’টি টি-২০ ম্যাচে৷ কোহলি আমেরকে সমীহ করে খেলে গিয়েছেন বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই৷ কিন্তু চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি ফাইনালে কোহলির উইকেট তুলে নিয়ে পাকিস্তানকে জেতাতে বড় ভূমিকা নিয়েছিলেন আমের৷ ব্যক্তিগত ৫ রানে বিরাটকে ড্রেসিংরুমে ফিরিয়েছিলেন বাঁ-হাতি পাক পেসার৷ এছাড়াও ভারতের দুই ওপেনার রোহিত শর্মা এবং শিখর ধাওয়ানও ছিলেন আমেরের শিকার৷ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি খেতাবের লড়াইয়ে পাকিস্তানের কাছে ১৮০ রানে হেরেছিল কোহলি অ্যান্ড কোং৷

এর পর অবশ্য সাক্ষাত হয়নি কোহলি-আমেরের৷ প্রথমে বিশ্বকাপের চূড়ান্ত ১৫ জনের দলে এই বাঁ-হাতি পেসারকে রাখেনি পাক নির্বাচকরা৷ কিন্তু বিশ্বকাপ শুরুর ঠিক আগে আমেরকে দলে ঢোকায় পাকিস্তান৷ সুযোগ পেয়ে প্রতিপক্ষ ব্যাটসম্যানদের চাপে রেখেছেন বাঁ-হাতি পাক পেসার৷ এখনও পর্যন্ত ১০টি উইকেট তুলে নিয়ে বিশ্বকাপে বোলারদের মধ্যে শীর্ষে রয়েছেন আমের৷ আগের ম্যাচেই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে দল হারলেও মাত্র ৩০ রান দিয়ে পাঁচ উইকেট তুলে নেন তিনি৷ ওয়ান ডে ক্রিকেটে এটাই সেরা বোলিং পারফরম্যান্স আমেরের৷ এছাড়া ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে দু’টি এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে তিনটি উইকেট তুলে নেন পাক পেসার৷

অন্য দিকে প্রথম ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে রান না-পেলেও অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ৮২ রানের গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলে রানে ফেরার ইঙ্গিত দেন কোহলি৷ তাঁর ও ধাওয়ানের চওড়া ব্যাটে অস্ট্রেলিয়াকে হারায় ভারত৷ বিশ্বকাপে ব্যক্তিগত পারফরম্যান্স কোহলির থেকে আমের এগিয়ে থাকলেও দলগতভাবে অবশ্য রবিবার এগিয়ে থেকে মাঠে নামবে৷

কারণ বিশ্বকাপে এখনও পর্যন্ত কোনও ম্যাচ না-হেরে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে নামছে ভারত৷ প্রথম ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ৬ উইকেটে জয় এবং দ্বিতীয় ম্যাচে অস্ট্রেলিয়াকে ৩৬ রানে হারিয়েছে কোহলি অ্যান্ড কোং৷ নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে বিরাটদের তৃতীয় ম্যাচ অবশ্য বৃষ্টিতে ভেস্তে যায়৷ তিন ম্যাচে পাঁচ পয়েন্ট নিয়ে লিগে এই মুহূর্তে চার নম্বরে ভারত৷

অন্যদিকে, চার ম্যাচের দু’টিতে হেরেছে পাকিস্তান৷ প্রথম ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে পর্যুদস্ত হওয়ার পর দ্বিতীয় ম্যাচে ইংল্যান্ডকে হারিয়ে দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়ায় সরফরাজ অ্যান্ড কোং৷ শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে পরের ম্যাচ বৃষ্টিতে ভেস্তে যায়৷ কিন্তু চতুর্থ ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার কাছে হারে পাকিস্তান৷