তাশকেন্ট: টানা তৃতীয় বারের জন্য অনূর্ধ্ব-১৬ এএফসি চ্যাম্পিয়নশিপের ছাড়পত্র আদায় করে নিল ভারত৷ যোগ্যতা অর্জন পর্বে গ্রুপ-বি থেকে এক নম্বর দল হিসাবে মূলপর্বে খেলা ছাড়পত্র আদায় করে নেয় ভারতীয় দল৷

আরও পড়ুন: ৮-০, প্রিমিয়র লিগে সর্বাধিক ব্যবধানে জয় ম্যান সিটির

লিগের শেষ ম্যাচে আয়োজক উজবেকিস্তানের বিরুদ্ধে ১-১ গোলে ড্র করে ভারতের ছোটরা৷ তিন ম্যাচের শেষে উজবেকিস্তানের মতোই ৭ পয়েন্ট সংগ্রহ করে ভারত৷ তবে গোল পার্থক্যে উজবেকদের (+৩) থেকে অনেক এগিয়ে থাকার সুবাদে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয় অনূর্ধ্ব-১৬ ভারতীয় দল (+১০)৷ গ্রুপের অপর দু’টি ম্যাচে ভারত পরাজিত করেছে তুর্কমেনিস্তান ও বাহরিনকে৷ দু’টি ম্যাচেই ভারত ৫টি করে গোল দিয়েছে প্রতিপক্ষকে৷ একটিও গোল হজম করতে হয়নি তাদের৷ উল্লেখ্য, আগামী বছর বাহরিনে অনুষ্ঠিত হবে এএফসসি আনূর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপ৷

আরও পড়ুন: বার্সেলোনাকে হারিয়ে লা-লিগার শীর্ষে গ্রানাদা

গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য উজবেকিস্তানের বিরুদ্ধে নূন্যতম ড্র করা প্রয়োজন ছিল ভারতের৷ ম্যাচের ৬৮ মিনিটে শ্রীদার্থ নংমেইকাপামের গোলে ১-০ এগিয়ে যায় ভারত৷ ৮১ মিনিটে ম্যাচে ১-১ গোলে সমতা ফেরান উজবেকিস্তানের রায়ান ইসলামোভ৷ শ্রীদার্থ এর আগে তুর্কমেনিস্তান ও বাহরিনের বিরুদ্ধে ২টি করে গোল করেছিলেন৷ অর্থাৎ, তিন ম্যাচে মোট ৫টি গোল করেন তিনি৷

আরও পড়ুন: পিছিয়ে পড়েও জয় জুভেন্তাসের, ডার্বি জিতল ইন্টার মিলান

আগামী বছর এএফসি চ্যাম্পিয়নশিপের মূলপর্বে মোট ১৬টি দল অংশ নেবে৷ আয়োজক হিসাবে বাহরিন সরাসরি মূলপর্বে খেলার ছাড়পত্র পেয়েছে৷ ভারত পর পর তিন বার টুর্নামেন্টের মূলপর্বে জায়গা করে নেয়৷ ২০১১ সাল থেকে এই নিয়ে চার বার এবং সব মিলিয়ে ৯ বার ভারতকে দেখা যাবে অনূর্ধ্ব-১৬ এএফসি চ্যাম্পিয়নশিপে৷ গত বছর টুর্নামেন্টের কোয়ার্টার ফাইনালে কোরিয়া রিপাবলিকের কাছে হেরে অল্পের জন্য অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপের টিকিট হাতছাড়া হয় ভারতের৷