নয়াদিল্লি: দু’দশের সম্পর্কের অবনতির কারণে ক্রিকেটে ভারত-পাকিস্তান মহারণ এখন ‘ডুমুরের ফুল’৷ একমাত্র নিরপেক্ষ ভেন্যুতে কোনও টুর্নামেন্ট ছাড়া মুখোমুখি হতে দেখাই যায় না দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দলকে৷ কিন্তু জুনে ইংল্যান্ডে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির আগেই ফের মুখোমুখি হচ্ছে ভারত–পাক।

বাংলাদেশে ১৫ থেকে ২৬ মার্চ হবে এমার্জিং কাপ। তবে কোহলি–সরফরাজদের লড়াই দেখা যাবে না। কারণ,অনূর্ধ্ব-২৩–দের জন্য এই টুর্নামেন্ট। সেখানে যোগ দেবে ভারত, পাকিস্তান, বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, আফগানিস্তান, সংযুক্ত আরব আমিরশাহি, হংকং ও নেপাল। আইসিসি’র পূর্ণসদস্য দেশগুলো চারজন সিনিয়রকে খেলানোর সুযোগ পাবে। অ্যাসোসিয়েট দেশ হওয়ায় আফগানিস্তান, হংকং, ইউএই, নেপাল অবশ্য সিনিয়র দলই খেলাবে।

বাংলাদেশে অনূর্ধ্ব–২৩ টুর্নামেন্ট যখন চলবে, ভারতের সিনিয়র দল তখন ব্যস্ত থাকবে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজ নিয়ে। তাই কোন চারজন সিনিয়র খেলবেন তা নিশ্চিত নয়। প্রতিযোগিতার আয়োজক এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল। বিসিসিআই এখানে খেলার ব্যাপারে সম্মতি দিয়েছে। যেহেতু দ্বিপাক্ষিক সিরিজ নয়, তাই ভারত–পাক লড়াইয়ে আপত্তি নেই ভারতীয় বোর্ডের। ২০১৫ বিশ্বকাপে শেষবার মুখোমুখি হয়েছিল ভারত–পাকিস্তান।