দুবাই: পূর্ব নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী ২০২১ সালে ভারতের মাটিতেই হবে টি-২০ বিশ্বকাপ৷ তবে এটি গ্রাহ্য হবে চলতি বছর স্থগিত হয়ে যাওয়া টি-২০ বিশ্বকাপ হিসেবে৷ আর ২০২১ সালে ভারতের মাটিতে হয়ে চলা বিশ্বকাপ হবে ২০২২ সালে অস্ট্রেলিয়ায় মাটিতে। শুক্রবার টেলি-বৈঠকে বিসিসিআই ও ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার কর্তাদের সঙ্গে আলোচনা করে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে আইসিসি।

করোনাভাইরাসের কারণে চলতি বছর অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে ১৮ অক্টোবর থেকে শুরু হতে চলা টি-২০ বিশ্বকাপ স্থগিত করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় আইসিসি৷ সেই বিশ্বকাপ হবে ২০২১ সালে ভারতের মাটিতে৷ তবে ২০২০ টি-২০ বিশ্বকাপ আগামী বছর নিজেদের মাটিতে আয়োজন করার ইচ্ছে প্রকাশ করেছিল ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া৷ কিন্তু ২০২৩ সালে ভারতের মাটিতে ওয়ান ডে বিশ্বকাপ থাকায় ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার অনুরোধে সাড়া দেয়নি বিশ্ব ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা৷ সুতরা আগামী বছর পুরুষদের টি-২০ বিশ্বকাপ হবে ভারতে৷ আর ২০২১ সালে ভারতের মাটিতে হতে চলা টি-২০ বিশ্বকাপ হবে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে ২০২২ সালে৷

আইসিসি-র কর্যকরী চেয়ারম্যান ইমরান খোওয়াজা বলেন, ‘গত কয়েক মাস পরিস্থিতির উপর নজর রেখে আমরা বিশ্বকাপ নিয়ে সিদ্ধান্ত নিই৷ আমারদের প্রধান উদ্যেশই হল বিশ্বকাপের সঙ্গে জড়িত প্রত্যেকের স্বাস্থ্য রক্ষা খেলার স্বার্থ এবং ক্রিকেট ফ্যানেদের কথা ভেবে আমার এদিন এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি৷ এ জন্য আমরা বিসিসিআই, ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া এবং ক্রিকেট নিউজিল্যান্ডকে ধন্যবাদ জানায়৷’

আইসিসি-র চিফ একজিকিউটিভ মনু সাওয়নি জানান, ‘আমরা এখন আইসিসি ইভেন্টগুলির ভবিষ্যতের বিষয়ে সম্পূর্ণ স্পষ্টতা পেয়েছি৷ আমাদের সব সদস্যকে নিয়ে আন্তর্জাতিক ও ঘরোয়া ক্রিকেটের পুনর্নির্মাণের দিকে মনোনিবেশ করতে সক্ষম হয়েছি। আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি ভারতে পুরুষদের টি-২০ বিশ্বকাপ ২০২১ সালে এবং ২০২২ সালে অস্ট্রেলিয়া আয়োজন করবে টি-২০ বিশ্বকাপ৷’

তবে ২০২১ সালে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে মহিলাদের ওয়ান ডে বিশ্বকাপ স্থগিত করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে আইসিসি৷ পরিবর্তে মেয়েদের এই বিশ্বকাপ হবে ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারি ও মার্চে৷

মনু সাওয়নি জানান, ‘আমরা প্রতিদ্বন্দ্বী দেশ থেকে খেলোয়াড়দের দেওয়ার জন্য, আইসিসি মহিলা ক্রিকেট বিশ্বকাপের পিছিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি৷ বিশ্বের বৃহত্তম মঞ্চের জন্য প্রস্তুত হওয়ার সেরা সুযোগ পায়নি৷ কারণ কারণ চলতি বছরের শুরুর দিকে আইসিসি উইমেস টি-২০ বিশ্বকাপের পর থেকে কোনও উইমেস আন্তর্জাতিক সিরিজ হয়নি৷ বিশ্বব্যাপী কোভিড-১৯-এর বিভিন্ন প্রভাবের কারণে এটি বেশিরভাগ দলেরই পরিস্থিতি খেলার মতো নেই। তাই ১২ মাসের মধ্যে বিশ্বকাপে ইভেন্টটি আয়োজিত হলে প্রতিযোগী দলগুলি একটি ক্রিকেট বিশ্বকাপে নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য পর্যাপ্ত ক্রিকেট খেলার সুযোগ পাবে না৷ তাই তা পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে৷’

আইসিসি পুরুষদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০২১-এর ফর্ম্যাটটি যেমন থাকবে তেমন থাকবে৷ ২০২০ টি-২০ বিশ্বকাপে যোগ্যতাঅর্জন করা সমস্ত দলই ২০২১ সালে ভারতে অনুষ্ঠিত টি-২০ বিশ্বকাপে অংশ নেবে। আর ২০২২ সালে টি-২০ বিশ্বকাপের জন্য নতুন যোগ্যতা অর্জন প্রক্রিয়া পরে শুরু হবে৷

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও