ওয়াশিংটন: এবার আফগানিস্তানের জঙ্গি দমনে ভারত-সহ অন্যান্য পড়শি দেশকে দায়িত্ব নিতে হবে৷ হোয়াইট হাউসে দাঁড়িয়ে সাংবাদিকদের তেমন কথাই শুনিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।দিল্লির পাশাপাশি তেহরান, মস্কো ও ইস্তানবুলের জন্য একই কথা জানিয়েছেন ট্রাম্প৷

এই প্রসঙ্গে ট্রাম্পের বক্তব্য, আফগানিস্তানে জঙ্গিদের দমনে যা করার, সেটা আমেরিকা সাত হাজার মাইল দূর থেকে করেছে। তবে এবার রাশিয়া, আফগানিস্তান, ভারত, ইরান, ইরাক, তুরস্ককেও এই জঙ্গি সংগঠনকে উপযুক্ত শিক্ষা দিতে যুদ্ধে নামতে হবে। বিশেষত যে সব দেশের অভ্যন্তরে অথবা সীমানায় ইসলামিক স্টেট (আইএস) ডেরা বেঁধেছে এবং নিজেরা প্রতি নিয়ত আক্রান্ত হচ্ছে তাদেরও এবার লড়তে হবে। তিনি প্রশ্ন ছুড়ে দিয়েছেন, আরও ১৯ বছর মার্কিন সেনা সেখানে মোতায়ন থাকবে নাকি ?

ইতিমধ্যেই ট্রাম্প জানিয়েছিলেন, যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্তান থেকে আমেরিকা এখনই পুরোপুরি মার্কিন সেনা সরিয়ে নেওয়ার কথা ভাবছে না। তালিবানরা যাতে ফের মাথাচাড়া দিতে না পারে, তার জন্য কাউকে সেখানে থাকতেই হবে।কিন্তু এবার ট্রাম্পের মুখে বারবার উঠেছে ভারতের নাম। বিশেষত তিনি উল্লেখ করেন, ভারত একেবারে কাছে থাকলেও লড়ছে না।

এই মুহূর্তে বহু ইউরোপীয় আইএস জঙ্গি আমেরিকার হাতে বন্দি রয়েছে বলে ট্রাম্প জানিয়েছেন। সেক্ষেত্রে ইউরোপকে ওই সব বন্দিদের দায়িত্ব নিতে বলা হয়েছে ৷ নইলে ওই সব বন্দিদের মুক্তি দিয়ে সংশ্লিষ্ট দেশে পাঠিয়ে দেওয়া হবে। ট্রাম্পের অভিমত,তাঁরা ওই আইএস জঙ্গিদের ধরেছেন। কিন্তু বাস্তবে এখন ওই সব জঙ্গিরা ফ্রান্স-জার্মানির নাগরিক হলেও, সেই দেশগুলি তাদের ফেরত নিতে চাইছে না।