বার্মিংহ্যাম: বিশ্বকাপের প্রথম ছ’ম্যাচে অপরাজিত থেকে সেমিফাইনালের দোরগোড়ায় টিম কোহলি৷ বৃহস্পতিবার ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে গুড়িয়ে ‘সেকেন্ড বয়’ ভারত৷ রবিবার এজবাস্টনে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে অ্যাওয়ে জার্সিতে মাঠে নামবেন বিরাট-ধোনিরা৷ ইংল্যান্ড ম্যাচ খেলতে শুক্রবারই বার্মিংহ্যাম পৌঁছয় বিরাট-ধোনিরা৷

শুক্রবারই বিসিসিআই-এর অফিসিয়াল স্পনসর নাইকি বিরাটদের অ্যাওয়ে জার্সি উন্মোচন করে৷ এই ম্যাচে টিম ইন্ডিয়া চিরাচরিত ‘মেন ইন ব্লু’ পরিবর্তে হয়ে উঠবে ‘মেন ইন ওরেঞ্জ’৷ অনেক দলের কাছাকাছি রঙ হওয়ার এবার আইসিসি বিশ্বকাপে হোম ও অ্যাওয়ে জার্সির ব্যবস্থা করেছে৷ বিরাটরা প্রথম ৬টি ম্যাচ চিরাচরিত ব্লু জার্সি (হোম) পরে মাঠে নামলেও রবিবার এজবাস্টনে প্রথমবার অ্যাওয়ে জার্সিতে মাঠে নামবেন৷

দক্ষিণ আফ্রিকা ইতিমধ্যেই অ্যাওয়ে জার্সি পরে খেলেছে৷ কেনিংটন ওভালে তাদের দ্বিতীয় ম্যাচেই বাংলাদেশের বিরুদ্ধে উজ্জ্বল হলুদ রঙের (অ্যাওয়ে) জার্সি পরে মাঠে নেমেছিলেন ডু’প্লেসি-আমলারা৷ তবে জার্সি পরিবর্তনেও ভাগ্য পরিবর্তন হয়নি প্রোটিয়াদের৷ প্রথম ম্যাচে চিরাচরিত সবুজ জার্সি পরে ইংল্যান্ডের কাছে হারের পর দ্বিতীয় ম্যাচ বাংলাদেশের বিরুদ্ধে উজ্জ্বল হলুদ রঙের জার্সিতে জয় অধরা ছিল প্রোটিয়াদের৷

বাংলাদেশ ক্রিকেটাররা বিশ্বকাপে তাঁদের অ্যাওয়ে জার্সি পরে মাঠে নেমেছিল ওয়ার্ম-আপ ম্যাচে৷ শ্রীলঙ্কার অ্যাওয়ে জার্সির রঙ হলুদ-নীল৷ এর মধ্যে অবশ্য হলুদের প্রাধান্য বেশি৷ অ্যাওয়ে জার্সি পরতে হয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেটারদেরও৷ তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ, অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ডের জার্সির রঙ একেবারে আলাদা হওয়ায় অ্যাওয়ে প্রয়োজন হয়নি৷ আর আয়োজক হিসেবে ইংল্যান্ড প্লে-ব্লু জার্সি পরেই বিশ্বকাপের সব ক’টি ম্যাচ খেলছে৷

এজবাস্টনে বিরাটদের জার্সি বদল হলেও মর্গ্যানদের জার্সির রঙ একই থাকবে৷ তবে জার্সির রঙ নয়, ভাগ্যের রঙ বদলাতে চান ইংরেজ ক্রিকেটাররা৷ কারণ ভারতের কাছে হারলেই বিশ্বকাপ থেকে ছুটি হয়ে যাবে ফেভারিট তকমা লাগা ইংল্যান্ডের৷ কারণ শেষ দু’টি ম্যাচে শ্রীলঙ্কা ও অস্ট্রেলিয়ার কাছে হারায় সরু তারে ঝুলছে মর্গ্যান-রুটদের ভাগ্য৷

অন্যদিকে, বিরাট-ধোনিরা রবিবার ইংল্যান্ডকে হারালেই দু’ ম্যাচ বাকি থাকতেই পৌঁছে যাবে সেমিফাইনালে৷ বৃহস্পতিবার ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে লিগ তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ভারত৷ ৬ ম্যাচে বিরাটদের পয়েন্ট ১১৷ অর্থাৎ সেমিফাইনালে উঠতে মাত্র বাকি তিন ম্যাচে এক পয়েন্ট দরকার৷ এখনও পর্যন্ত চলতি বিশ্বকাপে কোনও ম্যাচ হারেনি কোহলি অ্যান্ড কোং৷ ৬ ম্যাচের মধ্যে পাঁচটিতে জয় পেয়েছে ভারত৷ আর বৃষ্টির জন্য নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে বিরাটদের ম্যাচ ভেস্তে গিয়েছে৷