লিডস: বিশ্বকাপ চলাকালীন ফের একবার নিরাপত্তা নিয়ে বিরক্তি প্রকাশ করল ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল৷ শনিবার ভারত-শ্রীলঙ্কা ম্যাচের সময় হেডিংলি স্টেডিয়ামে ব্যানার নিয়ে দুটি বিমান উড়তে দেখা যায়, যার মধ্যে একটি ব্যানারে লেখা ‘জাস্টিস ফর কাশ্মীর’, এবং পর মুহূর্তেই দ্বিতীয় ব্যানারে লেখা, ‘ইন্ডিয়া স্টপ জেনোসাইড অ্যান্ড ফ্রি কাশ্মীর’৷

এই ঘটনার পরই আইসিসি একটি বিবৃতি প্রকাশ করে এর তীব্র নিন্দা করে এবং জানায় টুর্ণামেন্টে এই ধরণের রাজনৈতিক বার্তাকে সমর্থন করে না তারা৷ এই ধরণের ঘটনা ফের একবার ঘটায় তাঁরা যে বিরক্ত তা স্পষ্ট করে দেয় বোর্ড৷ টুর্ণামেন্টে এই ধরণের ঘটনা যাতে না ঘটে তার জন্য স্থানীয় পুলিশ ফোর্সের সঙ্গে কথা বলে ব্যবস্থা করা হয়৷

পড়ুন: বিশ্বকাপে সচিনের রেকর্ড ভাঙলেন অনবদ্য শাকিব

প্রসঙ্গত, এর আগে গত জুন মাসে, পাকিস্তান-আফগানিস্তান ম্যাচ চলাকালীন মাঠের উপর দিয়ে বিনা বাধায় উড়ে যায় একটি ক্ষুদে বিমান৷ তার লেজের সঙ্গে উড়ছিল বালোচিস্তানকে মুক্ত কর ধাঁচের ফেস্টুন৷ এতেই যেন আগুনে ঘি পড়ে৷ স্পর্শকাতর এই ইস্যু নিয়ে দুই দেশের সমর্থকদের কথা কাটাকাটি ও পরে মারামারির ঘটনা ঘটে৷ ক্রিকেট বিশ্বকাপের আসরে এমন ঘটনায় ছড়ায় চাঞ্চল্য৷

বালোচিস্তান হল পাকিস্তানের একটি প্রদেশ৷ এর সঙ্গে আফগানিস্তান ও ইরানের সীমান্ত রয়েছে৷ ইরানের দিকে অংশটি সিস্তান-বালুচিস্তান নামে পরিচিত৷ পাকিস্তানের স্বাধীনতার পর থেকেই বালোচ প্রদেশে বিদ্রোহ জন্ম নেয়৷
কোনওভাবে পাকিস্তানের দিকে পড়া বালোচরা অধীনতা মানতে রাজি হয়নি৷ পরে সেই বিক্ষোভ ও বিদ্রোহ সামাল দিতে টানা সেনা অভিযান চালিয়ে আসছে পাকিস্তান সরকার৷ আর বালোচ বিদ্রোহীরাও সশস্ত্র পথে হামলা চালায়৷ দু’পক্ষের সংঘর্ষ ও নাশকতায় বহু মানুষের মৃত্যু হয় এই এলাকায়৷

পাক সরকারের অভিযোগ, বালোচ বিদ্রোহীদের মদত দেয় ভারত সরকারের গুপ্তচর বিভাগ৷ তাদের প্রতি সহানুভূতিশীল আফগানিস্তানও৷ যদিও দুই রাষ্ট্রই এই অভিযোগ অস্বীকার করে৷