নয়াদিল্লি: বেলাগাম সংক্রমণ। দেশজুড়ে বেড়েই চলেছে করোনার সংক্রমণ। মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত দেশে নোভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৫ লক্ষ ৬৬ হাজার ৮৪০। দেশে করোনায় মৃত বেড়ে ১৬ হাজার ৮৯৩।

তবে একদিকে যেমন আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে তেমনি সুস্থও হচ্ছেন অনেকে। এখনও পর্যন্ত ৩ লক্ষ ৩৪ হাজার ৮২২ জন করোনামুক্ত হয়েছেন। এই মুহূর্তে দেশে করোনা অ্যাক্টিভ কেস ২ লক্ষ ১৫ হাজার ১২৫।

একটানা লকডাউনেও করোনায় লাগাম পরানো যায়নি। প্রতিদিন লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। দেশের মধ্যে করোনার সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ছড়িয়েছে মহারাষ্ট্রে। মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী মহারাষ্ট্রে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১ লক্ষ ৬৯ হাজার ৮৮৩। মহারাষ্ট্রে করোনায় মৃত বেড়ে ৭ হাজার ৬১০।

সংক্রমণের নিরিখে মহারাষ্ট্রের পরেই রয়েছে রাজধানী তামিলনাড়ু। দক্ষিণের এই রাজ্যে নোভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৮৬ হাজার ২২৪।

করোনায় তামিলনাড়ুতে মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ১৪১ জনের। তামিলনাড়ুর গা ঘেঁষে দেশের মধ্যে ঠিক তার পরের সর্বাধিক সংক্রমিত রাজ্য রাজধানী দিল্লি। মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত দিল্লিতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৮৫ হাজার ১৬১। রাজধানীতে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ২ হাজার ৬৮০ জনের।

বাংলাতেও উদ্বেগ বাড়াচ্ছে করোনা। রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১৭,৯০৭। সোমবারের রাজ্য সরকারের বুলেটিন অনুযায়ী নতুন করে ৬২৪ জনের শরীরে করোনার হদিশ মেলে। যা একদিনের হিসেবে সর্বোচ্চ। নতুন করে মৃত্যু হয়েছে ১৪ জনের। বাংলায় করোনায় মোট মৃত ৬৫৩।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।