ওয়াশিংটন: করোনাভাইরাস টেস্টিং-এর ক্ষেত্রে আমেরিকার পরেই দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ভারত, এমনটাই জানালেন মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প। একই সঙ্গে তাঁর বক্তব্য, বিশ্বের আর কোনও দেশ টেস্টিং-এর ক্ষেত্রে আমেরিকার ধারেকাছে নেই।

মার্কিন রাষ্ট্রপতির বক্তব্য অনুযায়ী, আমেরিকায় করোনা ভাইরাসের জন্য প্রায় ৬৫ মিনিয়ন মানুষের টেস্টিং করানো হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ভারতে সেখানে পরীক্ষা করা হয়েছে ১১ মিলিয়ন মানুষকে।

সাংবাদিকদের ট্রাম্প বলেন,”আমরা প্রায় ৬৫ মিলিয়ন মানুষকে পরীক্ষা করিয়েছি, অন্য কোনও দেশ এই নম্বরের ধারে কাছেও নেই। ভারত ১১ মিলিয়ন মানুষকে পরীক্ষা করিয়ে হয়তো দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে,তাঁদের জনসঙ্খ্যা ১.৫ বিলিয়ন। আমাদের এখন পর্যন্ত বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় এবং সর্বোচ্চ মানের পরীক্ষা করা হয়েছে।”

সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ” আমি দৃঢ় ভাবে মনে করি বছরের শেষের দিকে আমাদের হাতে একটি ভ্যাকসিন থাকবে। এটি পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে এটাকে পরিষেবার কাজে লাগানো হবে।”

ট্রাম্প বলেন, গত সাত দিনে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে করোনা ১৪ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে। এছাড়া তিনি বলেন, আমেরিকায় গত ৭ দিনে হাসপাতালে ভর্তির হার কমেছে ৭ শতাংশ ও মৃত্যুর হারও কমেছে ৯ শতাংশ।

অন্যদিকে জন হপকিন্স ইউনিভার্সিটির তথ্য অনুযায়ী সোমবার অবধি মার্কিন মুলুকে মোট করোনা সংক্রমণের সংখ্যা ৫ লক্ষ ৭৫ হাজার ৬৭৮ টি।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও