নয়াদিল্লি: ২০১৭ অনুর্ধ্ব ১৭ বিশ্বকাপ ফুটবলের সাফল্য উসকে দিয়েছিল জল্পনা। ২০২০ অনুর্ধ্ব ১৭ মহিলা বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজনের দায়িত্ব চেয়ে ফুটবলের নিয়ামক সংস্থার কাছে আবেদন করেছিল অল ইন্ডিয়া ফুটবল ফেডারেশন। অবশেষে সেই সবুজ সংকেত পেয়ে গেল এআইএফএফ। সব জল্পনা দূরে সরিয়ে ২০২০ অনুর্ধ্ব ১৭ মহিলা বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজনের দায়িত্ব পেল ভারত। টুইটার হ্যান্ডেলে শুক্রবার বিষয়টি নিশ্চিত করল ভারতের ফুটবল ফেডারেশন।

একইসঙ্গে নিশ্চিত হল আয়োজক দেশ হিসেবে প্রথমবার ভারতের মহিলা ফুটবল দলের বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করার বিষয়টিও। অর্থাৎ দ্বিতীয়বারের জন্য ফিফা ওয়ার্ল্ড কাপে অংশগ্রহন করতে চলেছে ভারত। ২০১৭ অনুর্ধ্ব ১৭ ফুটবল বিশ্বকাপের আয়োজক দেশ হিসেবে প্রথমবার বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করেছিল ভারতীয় ফুটবল দল।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সাফল্যের সঙ্গে অনুর্ধ্ব ১৭ বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজন করে ভারত। দিল্লির জওহরলাল নেহরু স্টেডিয়ামে জাতীয় দলের খেলায় দর্শক উপস্থিতির সংখ্যা ছিল গড়ে ৫০,০০০। গ্রুপ পর্ব থেকে ধীরজরা বিদায় নিলেও তাদের লড়াইকে কুর্নিশ জানিয়েছিলেন দর্শকেরা। সাফল্যের সঙ্গে টুর্নামেন্টের ফাইনাল আয়োজন করেছিল কলকাতার যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গন। হাইভোল্টেজ ফাইনালে স্পেনকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় ইংল্যান্ড। সাফল্যের সঙ্গে দেশের মাটিতে বিশ্বকাপ আয়োজনের জন্য ভারতকে অভিনন্দন জানান ফিফা প্রেসিডেন্ট ইনফান্তিনোও।

শেষবার ২০১৮ ঊরুগুয়ের মাটিতে অনুষ্ঠিত ফিফা অনুর্ধ্ব ১৭ মহিলা বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল স্পেন। অর্থাৎ আগামী বছর ট্রফি ধরে রাখার লক্ষ্য নিয়ে দেশের মাটিতে পা দেবে স্পেনের অনুর্ধ্ব ১৭ মহিলা ফুটবল দল। টুইটারে এদিন ভারতে অনুর্ধ্ব ১৭ মহিলা বিশ্বকাপ আয়োজনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন টুর্নামেন্টের ডিরেক্টর জেভিয়ার চেপ্পিও। একইসঙ্গে ভারতে বিশ্বকাপ আয়োজনের বিষয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশও করেছেন তিনি।

এআইএফএফ প্রেসিডেন্ট প্রফুল প্যাটেল টুইটারে এদিন লেখেন, ‘ভীষণ গর্বের মুহূর্ত একইসঙ্গে সম্মানের যে ২০২০ অনুর্ধ্ব ১৭ মহিলা বিশ্বকাপের আয়োজক দেশ হিসেবে নিশ্চিত হয়েছে ভারতের নাম। টুর্নামেন্টের চূড়ান্ত সাফল্যের জন্য লড়াই করব আমরা।’