নয়াদিল্লিঃ  ক্রমশ উত্তেজনা বাড়ছে ভারত-পাকিস্তান সীমান্তে। জঙ্গি অনুপ্রবেশ থেকে শুরু করে ভারতীয় সেনা ছাউনি টার্গেট করে শেলিং করা। শুধু তাই নয়, সীমান্ত সংলগ্ন গ্রামগুলিকে বারবার টার্গেট করছে পাকিস্তান সেনা। যার ফলে সেই সমস্ত এলাকাগুলিতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতিও হচ্ছে। আর তাই এবার সীমান্ত এলাকায় থাকা গ্রামের মানুষকে বাঁচাতে পাঁচিল দেওয়ার ভাবনা বিএসএফের।

সীমান্তে প্রায় ১০ মিটার উঁচু একটি পাঁচিল তৈরির ভাবনা চিন্তা শুরু করেছে দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনী। মনে করা হচ্ছে এর ফলে ভারত-পাকিস্তান সীমান্তে সুরক্ষা ব্যবস্থা আরও মজুবুত হবে। সহজেই জঙ্গি-অনুপ্রবেশ কিংবা পাকিস্তান বাহিনীর যে কোনও প্ররোচনা রুখে দেওয়া সম্ভব হবে বলে মনে করছেন সেনা আধিকারিকরা।

জানা যাচ্ছে, ভারত- পাক আন্তর্জাতিক সীমান্তে এই পাঁচিল তৈরি করা হবে ভাবনা চিন্তা শুরু হয়েছে। জম্মু-কাশ্মীরের আখনুর সেক্টর থেকে কাঠুয়া পর্যন্ত দীর্ঘ এই পাঁচিলটির চওড়ায় ১৩৫ ফুট করা হবে বলে জানিয়েছে বিএসএফ। বিএসএফের তরফে আরও জানানো হয়েছে, ইতিমধ্যে এই বিষয়ে কেন্দ্রকে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। কেন্দ্রের তরফেও বিষয়টি নিয়ে ভাবনা চিন্তা শুরু হয়েছে।

মনে হচ্ছে, আগামী কয়েকমাসের মধ্যেই এই বিষয়ে চূড়ান্ত কাজ শুরু হবে। বিএসএফের তরফে জানানো হয়েছে, এই পাঁচিল তৈরির জন্য কাঠুয়া এবং সাম্বা জেলার ১২২টি গ্রাম থেকে জমি অধিগ্রহণ করা হবে। ইতিমধ্যে সীমান্তের নিরাপত্তা নিয়ে একগুচ্ছ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, সীমান্তে অনুপ্রবেশ রুখতে ইতিমধ্যে একগুচ্ছ ব্যবস্থা নিয়েছে সেনাবাহিনী। কাটাতার লাগানো থেকে সীমান্তে অনুপ্রবেশ রুখতে ব্যবস্থা করা হয়েছে। কিন্তু এরপরেও অনেক ক্ষেত্রেই ফাঁকফোকর থেকে গিয়েছে। এবার সেগুলিই কড়া ভাবে ব্যবস্থা নিতে এভাবে উঁচু পাঁচিল তৈরির সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে ভারত।