মুম্বই : যদি ভারতীয় জনতা পার্টি ভারত, পাকিস্তান ও বাংলাদেশকে মিলিয়ে একটা গোটা রাষ্ট্র বানাতে পারে, তবে সেই পদক্ষেপে ন্যাশনালিস্ট কংগ্রেস পার্টি সাথে রয়েছে। এমনই মন্তব্য মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী নবাব মালিকের। তিনি বলেন ভারত, বাংলাদেশ ও পাকিস্তান মিলে একটি রাষ্ট্র হতেই পারে।

মালিকের এমন মন্তব্যের পিছনে রয়েছে মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়ণবিশের একটি বক্তব্য। তিনি বলেছিলেন এমন একটা সময় আসবে যখন ভারতের সাথে মিশে যাবে করাচি। সেই প্রেক্ষিতে এমন বক্তব্য রাখেন ফড়ণবিশ।

মালিক বলেন যদি বার্লিন ওয়াল গুঁড়িয়ে যেতে পারে, তবে সীমান্ত ভুলে তিন দেশ একও হয়ে যেতে পারে। আর তিন দেশকে একত্রিত করার দায়িত্ব যদি বিজেপি নেয়, তবে এনসিপি সেই কাজে বিজেপির পাশে থাকবে।

এদিকে, বিহার-সহ একাধিক রাজ্যের উপনির্বাচনে মুখ পুড়েছে কংগ্রেসের। এরই পাশাপাশি বেশ কয়েকটি রাজ্যের উপনির্বাচনেও ভরাডুবি হয়েছে হাত-শিবিরের। একের পর এক নির্বাচনে হারের দায় দলের শীর্ষ নেতৃত্বের উপরেই চাপিয়েছেন পি চিদম্বরম, গুলাম নবি আজাদ, কপিল সিব্বল-সহ কংগ্রেসের প্রথম সারির বেশ কয়েকজন নেতা।

এদিকে, দেশে করোনা সংক্রমণ অব্যহত। শেষ ২৪ ঘন্টায় করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৪৪ হাজার ৫৯ জন। এই সময়ের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে আরও ৫১১ জনের।নতুন করে সংক্রমণ ও মৃত্যুর জেরে দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯১ লক্ষ ৩৯ হাজার ৮৬৬ জন। মোট মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ লক্ষ ৩৩ হাজার ৭৩৮।

মোট আক্রান্তের মধ্যে অ্যাক্টিভ কেস রয়েছে ৪ লক্ষ ৪৩ হাজার ৪৮৬। করোনাকে হারিয়ে সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা ৮৫ লক্ষ ৬২ হাজার ৬৪২ জন। শেষ ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়েছেন ৪১ হাজারের বেশি মানুষ।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.