অ্যাডিলেড: সিডনিতে প্রথম ওয়ান ডে হেরে বসায় ভারতের সামনে অ্যাডিলেডের দ্বিতীয় একদিনের ম্যাচ ছিল সিরিজে টিকে থাকার লড়াই৷ কোহলিদের সেই লড়াই কঠিন করলেন অস্ট্রেলিয়ার বাঁ-হাতি মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যান শন মার্শ৷ মূলত মাশের্র দুরন্ত শতরানে ভর করে ভারতের সামনে জয়ের জন্য বিশাল রানের লক্ষ্যমাত্রা ঝুলিয়ে দেয় অজিরা৷

টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে অস্ট্রেলিয়া নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ২৯৮ রান তোলে৷ অর্থাৎ ‘ডু অর ডাই’ ম্যাচ জিতে সিরিজে টিকে থাকতে হলে ভারতকে তুলতে হবে ২৯৯ রান৷

আরও পড়ুন: পান্ডিয়াদের কটাক্ষ মুম্বই পুলিশের

আধুনিক ক্রিকেটে একদিনের ম্যাচে তিনশোর কম রানের টার্গেট নিতান্ত সহজ মনে হতে পারে৷ তবে অ্যাডিলেডের ওয়ান ডে ইতিহাসে তাকালে বোঝা যায় কাজটা খুব সহজ নয়৷ কেননা এই মাঠে বড় রান তাড়া করে জেতার নজির খুব একটা নেই৷ ১৯৯৯ সালে ইংল্যান্ডের ঝুলিয়ে দেওয়া ৩০৩ রানের লক্ষ্য তাড়া করে জিতেছিল শ্রীলঙ্কা৷ অ্যাডিলেডে সেটিই এখনও পর্যন্ত পরে ব্যাট করে জেতা দলের সব থেকে বড় ইনিংস৷

অজি ইনিংসের শুরুটা অবশ্য ভালো হয়নি৷ মাত্র ২৬ রানের মধ্যে দুই ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চ ও অ্যালেক্স ক্যারি আউট হয়ে বসেন৷ ফিঞ্চকে ৬ রানে বোল্ড করেন ভুবনেশ্বর৷১৮ রান করে ক্যারি আউট হন শামির বলে৷ তিন নম্বরে ব্যাট করতে নামা উসমান খোওয়াজা ২১ রান করে রানআউট হন৷

আরও পড়ুন: বিগেস্ট নাইটমেয়ার হার্দিককে একহাত ‘বিশেষ’ বান্ধবীর

হ্যান্ডসকম্ব, স্টোইনিস, ম্যাক্সওয়েলদের সঙ্গে জুটি বেঁধে মার্শ টেনে নিয়ে যান অস্ট্রেলিয়াকে৷ হ্যান্ডসকম্ব ২০ রান করে জাদেজার বলে আউট হন৷ স্টোইনিস ২৯ রান করে শামিকে উইকেট দেন৷ ম্যাক্সওয়েল ফেরেন ব্যক্তিগত হাফসেঞ্চুরির দোরগোড়া থেকে৷ ৪৮ রান করে ভুবির দ্বিতীয় শিকার হন তিনি৷

শন মার্শ ১১টি চার ও ৩টি ছক্কার সাহায্যে ১২৩ বলে ১৩১ রান করে ভুবনেশ্বরের বলেই জাদেজার হাতে ধরা পড়েন৷ ঝাই রিচার্ডসন ২ রান করে শামির বলে ধাওয়ানের হাতে ধরা দেন৷ খাতা খোলার আগেই পিটার সিডলকে সাজঘরে ফেরান ভুবনেশ্বর৷ নাথান লায়ন ১২ ও বেহরেনডর্ফ ১ রান করে অপরাজিত থাকেন৷

আরও পড়ুন: ১৪ রানে অল-আউট, আন্তর্জাতিক টি-২০ ম্যাচে সর্বনিম্ন

ভুবনেশ্বর ৪৫ রানের বিনিময়ে ৪ উইকেট দখল করেন৷ শামি নেন ৫৮ রানে ৩ উইকেট৷ জাদেজা নিয়েছেন একটি উইকেট৷ অভিষেক ম্যাচে মহম্মদ সিরাজ ১০ ওভারে ৭৬ রান খরচ করেও কোনও উইকেট তুলতে পারেননি৷

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।