বেঙ্গালুরু: দেশজোড়া লকডাউনের কারণে দু’মাসেরও বেশি সময় গৃহবন্দি থাকার পর অবশেষে আউটডোর অনুশীলনে নামার অনুমতি পেলেন দেশের হকি খেলোয়াড়রা। স্পোর্টস অথরিটি অফ ইন্ডিয়ায়  নির্দেশিকা মেনে গত সোমবার থেকে সাই’য়ের বেঙ্গালুরু ক্যাম্পাসে অনুশীলন শুরু করেছেন দেশের পুরুষ ও মহিলা হকি দলের প্লেয়াররা। এক বিবৃতির মাধ্যমে একথা জানাল হকি ইন্ডিয়া।

বিবৃতিতে হকি ইন্ডিয়া জানিয়েছে, ‘সিনিয়র পুরুষ এবং মহিলা হকি দলের কোর গ্রুপ সোমবার ১জুন থেকে স্পোর্টস অথরিটি অফ ইন্ডিয়ার বেঙ্গালুরু ক্যাম্পাসে অনুশীলন শুরু করেছে। স্পোর্টস অথরিটি অফ ইন্ডিয়ার স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রোসিডিওর মেনেই দু’দল অনুশীলন করছে। স্পোর্টস অথরিটি অফ ইন্ডিয়া বেঙ্গালুরু ক্যাম্পাস সরকারি নির্দেশিকা মেনে নিরাপত্তা সংক্রান্ত সমস্ত বিষয় নিশ্চিত করেছে এবং SOP (স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রোসিডিওর) মেনে নিরাপদ পরিবেশ প্রস্তুত করেছে। একইসঙ্গে SOP সম্পর্কে প্রত্যেক প্লেয়ারকে ভালোভাবে অবগত করানো হয়েছে।’

উল্লেখ্য, মার্চের শেষ সপ্তাহে দেশজুড়ে লকডাউন শুরু হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে হকি প্লেয়ারদের সমস্তরকম আউটডোর অ্যাক্টিভিটি বন্ধ হয়ে যায়। সাই ক্যাম্পাসেই আটকে পড়েন প্লেয়াররা। এরইমধ্যে সাই বেঙ্গালুরু ক্যাম্পাসে এক রাঁধুনির গত মাসে হার্ট অ্যাটাকে মৃত্যু হলে জানা যায় তিনি করোনা আক্রান্ত ছিলেন। ঘটনায় উৎকণ্ঠা ছড়িয়ে পড়ে সাই ক্যাম্পাসে। যদিও সাই’য়ের তরফ থেকে জানানো হয় লকডাউন শুরু হওয়ার আগে থেকেই ওই রাঁধুনিকে কাজে আসতে নিষেধ করা হয়েছিল। সুতরাং অ্যাথলিটদের তার সংস্পর্শে যাওয়ার কোনও প্রশ্নই নেই।

দু’মাস পর মাঠে ফিরে আপাতত ঘড়ি ধরে ন্যূনতম কসরত করছেন প্লেয়াররা। চোট এড়াতে তারা একেবারে প্রাথমিক স্তরের অনুশীলন সারছেন বলেই জানানো হয়েছে সাই’য়ের তরফ থেকে। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘প্লেয়াররা যখন নতুন পরিস্থিতিতে মানিয়ে নেওয়ার দিকে মনোসংযোগ করছেন তখন কোচিং স্টাফেদের প্রধান লক্ষ্য অবশ্যই নতুন পরিস্থিতিতে প্লেয়ারদের জন্য প্রাত্যহিক শিডিউল তৈরি করা।’

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প