নয়াদিল্লি: ৫৫ বছর পর পাকিস্তানের মাটিতে ভারতীয় দলের ডেভিস কাপ খেলার স্বপ্ন শেষ হয়ে গেল৷ সুত্রের খবর, কাশ্মীর নিয়ে দু’দেশের উত্তপ্ত রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে পাকিস্তানে ভারতীয় দল না-পাঠানোর জন্য এআইটিএ-কে জানিয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক৷ এ কথা মাথায় রেখে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে টাইয়ে নিরপেক্ষ ভেন্যুর জন্য আন্তর্জাতিক টেনিস ফেডারেশনের কাছে আবেদন জানিয়েছে অল-ইন্ডিয়া টেনিস অ্যাসোসিয়েশন৷

সেপ্টেম্বরে অনুষ্ঠিত হতে চলা পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সম্প্রতি ভারতীয় দল ঘোষণা করে এআইটিএ নির্বাচক কমিটি৷ প্রথম সারির সব খেলোয়াড়কে দলে রেখেছেন নির্বাচকরা৷ ১৪ ও ১৫ সেপ্টেম্বর ইসলামাবাদে হওয়ার কথা ভারত-পাক ডেভিস কাপ টাই৷ কিন্তু সপ্তাহের শুরুতে ভারত সরকার জম্মু-কাশ্মীর থেকে আর্টিকল ৩৭০ তুলে নেওয়ার প্রতিবাদ জানিয়েছে পাকিস্তান৷ প্রতিবাদে বুধবার ইসলামাবাদ থেকে ভারতীয় রাষ্ট্রদূতকে পাক সরকারের ফেরত পাঠানোর ঘোষণার পরই পরিস্থিতি আরও জটিল হয়৷ শুধু তাই নয়, একই সঙ্গে দিল্লি থেকেও পাকিস্তানি রাষ্ট্রদূতকে দেশে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে ইমরান খানের সরকার৷

এই পরিস্থিতিতে পাকিস্তানে ভারতীয় খেলোয়াড়দের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিতে পারে, এ কথা মাথায় রেখে ইসলামাবাদে ভারতীয় দল না-পাঠানোর কথা জানিয়েছে ভারত সরকার৷ সাড়ে পাঁচ দশক পরে পাকিস্তানের মাটিতে খেলতে যাওয়ার ঘোষণা হওার পরই বিদেশ মন্ত্রক ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের কাছে নিরাপত্তা নিয়ে নিশ্চয়তা চেয়েছিলেন ভারত অধিনায়ক মহেশ ভূপতি৷ সে সময় খোলোয়াড়দের নিরাপত্তার আশ্বাস দেওয়া হলেও বর্তমান পরিস্থিতিতে ইসালামাবাদে ভারতীয় দলের খেলা নিরাপদ হবে না বলে মনে করছে মোদী সরকার৷

অর্থাৎ দু’দেশের উত্তপ্ত রাজনৈতিক বাতাবরণে ক্রিকেটের পর টেনিসেও তার ছাপ পড়ল৷ সন্ত্রাসের আঁতুড়ঘর হিসাবে পরিচিত পাকিস্তান বহির্বিশ্বের কাছে নিরাপদ নয়৷ ২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলঙ্কার টিম বাসে সন্ত্রাসবাদী হামলার পর থেকে পাক ভূখণ্ডে আন্তর্জাতিক ম্যাচ না-করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল আইসিসি৷ পরে জিম্বাবোয়ে ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ পাকিস্তানের মাটিতে ক্রিকেট ম্যাচ খেললেও এখনও পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়নি৷

কিন্তু এই অবস্থাতেও ভারতীয় ডেভিস কাপ দল এশিয়া-ওশেনিয়া গ্রুপ-ওয়ান টাই খেলতে ইসলামাবাদ উড়ে যেতে সম্মত হয়েছিল৷ ১৪ ও ১৫ সেপ্টেম্বরের সেই টাইয়ে খেলার জন্য ভারতের প্রথম সারির তারকারা সবাই সম্মতি জানিয়েছিলেন৷ তবে পাকিস্তানে পা দেওয়ার আগে খেলোয়াড়দের নিরাপত্তা নিয়ে নিশ্চিত হতে চেয়েছিলেন ভারতের নন-প্লেয়িং ক্যাপ্টেন মহেশ ভূপতি৷ ফলে উদ্ভুত পরিস্থিতি

পাকিস্তানের মাটিতে শেষবার ১৯৬৪ সালে লাহোরে ডেভিস কাপের লড়াই হয়েছিল দু’দলের মধ্যে৷ ভারত টাই জিতেছিল ৪-০ ব্যবধানে৷ এবার টাই খেলা হওয়ার কথা ছিল ইসলামাবাদের স্পোর্টস কমপ্লেক্সের ঘাসের কোর্টে৷ মোট ৬ বার ডেভিস কাপে পাকিস্তানের মোকাবিলা করে ৬ বারই জিতেছে ভারত৷ শেষবার ভারত-পাকিস্তান পরস্পরের বিরুদ্ধে ডেভিস কাপ টাই খেলেছিল ২০০৬ সালে৷ মুম্বইয়ের ব্রেবোর্ন স্টেডিয়ামে পাকিস্তানকে ৩-২ হারিয়েছিল ভারত৷

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা