আমান: চরম অনিশ্চিয়তার ম্যাচ শেষ পর্যন্ত শেষ হলেও হার হজম করল স্টিফেন কনস্ট্যানটাইনের ছেলেরা৷ জর্ডনের কাছে ১-২ গোলে হারে ভারত৷
বিশ্বকাপ জয়ী কোচ মার্সেলো লিপ্পির কোচিং চিনের বিরুদ্ধে ড্র করার পর শনিবার সুনীল ছেত্রীকে ছাড়াই জর্ডনের বিরুদ্ধে খেলে ব্লুবিগ্রেড৷ চিনের বিরুদ্ধে দারুণ ফুটবল খেললেও এদিন তাদের থেকে ফিফা ব়্যাংকিংয়ে ১৫ ধাপ পিছিয়ে থাকা জর্ডনের বিরুদ্ধে সুযোগ হাতছাড়া করে ভারত৷ দু’দেশের মধ্যে প্রথম আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডলি ম্যাচে শেষ হাসি হাসল জর্ডন৷

টানা বৃষ্টির কারণে বিমান বিভ্রাটের মুখে পড়েছিল ভারতীয় দল৷ প্রচুর সময় নষ্ট হওয়ায় শনিবার ম্যাচ হওয়া নিয়েই সংশয় ছিল৷ টানা বৃষ্টির ফলে আমন পৌঁছতে অনেক দেরী হয় ভারতীয় দলের৷ ভারতের পুরো টিম এসে না-পৌঁছনোয় বহু প্রতিক্ষীত ম্যাচ বাতিল ঘোষণা করা হয়৷ কিন্তু এর কিছু পর এআইএফএফ-র পক্ষ থেকে অবশ্য জানানো হয়েছে, ‘দ্য শো মাস্ট গো অন’৷ ম্যাচ বাতিল নয়, সব বাধা পেড়িয়ে নির্ধারিত সময়ই ম্যাচ শুরু হবে৷ হলও তাই৷ ভারতীয় সময় রাত ১০.৩০ মিনিটে আমানের কিংস আবদ্দুলাহ স্টেডিয়ামে এই ম্যাচ শুরু হয়৷

১৫ সদস্যের ভারতীয় দল দুটি গ্রুপে ভাগ করে আমান পৌঁছয়৷ প্রথম গ্রুপে ভারতীয় গোলকিপার গুরপ্রীত সিং-সহ একাধিক ফুটবলার বৃহস্পতিবার রাতে পৌঁছে গেলেও বাকি ফুটবলার ও অফিসিয়ালসরা আটকে পরে৷ এআইএফএফ সূত্রে খবর, খারাপ আবহাওয়ার জন্য ৩২ ঘন্টারও বেশি সময় ধরে ভারতীয় দলের বাকি সদস্যদের কুয়েত বিমানবন্দরে আটকে থাকতে হয়৷ শেষ পর্যন্ত শুক্রবার গভীর রাতে আমানে পৌঁছয় বাকিরা৷ শনিবার সকালে নিজেদের ব্যাগপত্র সংগ্রহ করেন ফুটবলাররা৷ তার পর মাঠে নামেন ভারতীয় ফুটবলাররা৷

ম্যাচের ২৫ মিনিটে ভারতীয় গোলকিপার গুরপ্রীত সিং সান্ধুর মুর্খামিতে গোল হজম করে ভারতীয়৷ জর্ডন গোলকিপার আমের সাফির শট সরাসরি ভারতীয় গোলে ঢুকে যায়৷ বাউন্স বুঝতে না-পেরে গোল হজম করেন সান্ধু৷ ১-০ এগিয়ে যায় জর্ডন৷ প্রথমার্ধে ১-০ এগিয়ে থেকেই শেষ করে জর্ডন৷ দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই ব্যবধান বাড়ায় জর্জন৷ ৫৮ মিনিটে জর্ডনের হয়ে দ্বিতীয় গোলটি করেন এহসান হাদাদ৷ কিন্তু এর মিনিট তিনেকের মধ্যে চমক দেয় ভারত৷ জ্যাকিচাঁদ সিংয়ের পরিবর্ত হিসেবে নেমেই গোল করেন ভারতের নিশু কুমার৷ দেশের হয়ে অভিষেকেই গোল করে নজির গড়েন তিনি৷