দুবাই: টেস্ট ক্রিকেটের মসনদে বিরাট কোহলি নেতৃত্বাধীন ভারতীয় দলের লম্বা রাজত্ব শেষ হল অবশেষে। কোহলিদের সরিয়ে ১মে আইসিসি প্রকাশিত নয়া র‍্যাংকিংয়ে পাঁচদিনের ক্রিকেটের মসনদে ফের অস্ট্রেলিয়া। অন্যদিকে র‍্যাংকিং’য়ে একলাফে তৃতীয় স্থানে নেমে গেল টিম ইন্ডিয়া। দ্বিতীয়স্থানে নিউজিল্যান্ড।

২০১৬ শেষদিকে পাঁচদিনের ফর্ম্যাটে ধারাবাহিক ভালো পারফরম্যান্সের পুরস্কার হিসেবে র‍্যাংকিং’য়ে শীর্ষস্থান দখল করে টিম ইন্ডিয়া। এরপর লম্বা সময় ধরে টেস্ট ক্রিকেটে রাজত্ব করে বিরাট কোহলি নেতৃত্বাধীন ভারতীয় দল। গতবছর আইসিসি ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে টিম ইন্ডিয়া যাত্রা শুরু করে পয়লা নম্বর টিম হিসেবেই। চলতি বছরের গোড়ার দিকে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে সিরিজ হারের আগে অবধি ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে ভারতীয় দল ছিল এককথায় অপ্রতিরোধ্য। কিন্তু উইলিয়ামসনদের কাছে দু’ম্যাচের সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হওয়ার বিষয়টিই প্রতিফলিত হয়েছে সদ্য প্রকাশিত র‍্যাংকিং’য়ে।

যদিও চ্যাম্পিয়নশিপে এখনও শীর্ষস্থানেই কোহলিরা। তবে ১১৪ পয়েন্ট নিয়ে আপাতত র‍্যাংকিং’য়ে তৃতীয়স্থানে নেমে গেলেন তাঁরা। এক পয়েন্ট বেশি নিয়ে র‍্যাংকিং’য়ে একধাপ উপরে নিউজিল্যান্ড। আর ১১৬ পয়েন্ট নিয়ে র‍্যাংকিং’য়ে শীর্ষস্থানে অস্ট্রেলিয়া। এক বিবৃতি মারফৎ আইসিসি জানিয়েছে, ‘অক্টোবর ২০১৬ পর এই প্রথম ভারতীয় দল শীর্ষস্থানচ্যুত হল। ২০১৬-১৭ মরশুমে ভারতীয় দল ১২টি টেস্টে জয়লাভ করেছিল, হেরেছিল মাত্র একটিতে। তাদের সেই রেকর্ড নয়া আপডেটে ধরা হয়নি। র‍্যাংকিং’য়ে ভারতের পদস্খলনের অন্যতম বড় কারণ এটাই।’

টেস্টের পাশাপাশি ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত ফর্ম্যাটে প্রথমবারের জন্য শীর্ষস্থান দখল করল অজিরা। অর্থাৎ, টি-২০ ক্রিকেটে শীর্ষস্থান খোয়ালো পাকিস্তান। ২০১৮ জানুয়ারিতে নিউজিল্যান্ডকে সরিয়ে টি-২০ ক্রিকেটের মসনদ দখল করেছিল পাকিস্তান। ২৭ মাস পর র‍্যাংকিং’য়ে পদস্খলন হল তাঁদের। আপাতত চতুর্থস্থানে পাকিস্তান। প্রথম তিনটি স্থানে যথাক্রমে অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড এবং ভারত।

ওয়ান-ডে র‍্যাংকিং’য়ে অবস্থানের কোনও পরিবর্তন হয়নি ভারতীয় দলের। দ্বিতীয়স্থানেই রয়েছে তাঁরা। রেটিং পয়েন্টে আরও উন্নতি করে শীর্ষস্থানে অবস্থান মজবুত করেছে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প