লন্ডন : ক্রমশ সম্পর্কের ভিত মজবুত হচ্ছে ভারত-ব্রিটেনের। পরপর দুবার ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের ভারত সফর বাতিল হলেও মঙ্গলবার মোদীর সঙ্গে ভার্চুয়ালি বৈঠকে বসবেন তিনি। বর্তমান করোনা পরিস্থিতি সহ একাধিক আন্তর্জাতিক ইস্যু নিয়ে আলোচনা হতে পারে বৈঠকে।

তবে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর ভার্চুয়ালি বৈঠকের কথা ঘোষণার মাঝেই এবার ভারতকে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ পার্টনার বলে অভিহিত করলেন যুক্তরাজ্যের হাই কমিশনার অ্যালেক্স এলিস।

রবিবার একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের কাছে সাক্ষাৎকারে ব্রিটিশ হাইকমিশনার অ্যালেক্স এলিস জানান, ভারতের সঙ্গে ববন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখতে সবসময় বদ্ধপরিকর ব্রিটেন। এছাড়াও বর্তমানে ভারতের করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় ব্রিটেন সবরকম ভাবে ভারতকে সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে। ভারতের করোনা সংক্রমণ রুখতে অতিদ্রুত কাজ করছে বরিস প্রশাসনও।

এছাড়াও তিনি আরও জানান, ভারতের করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় সেদেশের অক্সিজেনের সমস্যা মেটাতে ব্রিটিশ সরকারের তরফে গত ২৭ এপ্রিল ২০০ টি ভেন্টিলেটর, ৪৯৫ টিঅক্সিজেন কন্সেন্ট্রটর এবং অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ মেডিক্যাল পণ্য ইতিমধ্যে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। যেগুলি এতক্ষণে ভারতের বিভিন্ন হাসপাতালে সরবরাহ করা হয়ে গিয়েছে।

শুধু তাই নয়, খুব শীঘ্রই আরও ১০০০ ভেন্টিলেটর ও অন্যান্য মেডিক্যাল সরঞ্জাম ভারতে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। এছাড়াও বর্তমান পরিস্থিতিতে করেনার সেকেন্ড ওয়েভ ঠেকাতে ভারতকে সবরকম ভাবে সহযোগিতা করার জন্য লন্ডন সরাসরি ভারতীয় হাইকমিশনের সঙ্গে একযোগে কাজ করে চলেছে। ব্রিটেনে অবস্থিত বিভিন্ন প্রবাসী ভারতীয়রাও করোনা পরিস্থিতিতে দেশকে সহযোগীতা করতে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, মানুষকে স্বস্তি দিয়ে রবিবার কিছুটা কমেছিল করোনা সংক্রমণ। সোমবারও সেই জের অব্যাহত রইল। এদিন রবিবারের রিপোর্টের তুলনাতেও কমল করোনা সংক্রমণ। আক্রন্তের সংখ্যা নেমে এসেছে ৩ লক্ষ ৬৮ হাজারে। পাশাপাশি বেড়েছে সুস্থতার হারও।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী গত ২৪ ঘন্টায় দেশে করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৩ লক্ষ ৬৮ হাজার ১৪৭ জন। গত কয়েকদিন যেভাবে ঊর্ধ্বমুখী হচ্ছিল সংক্রমণ, এদিনের সংখ্যা তার চেয়ে কিছুটা কম। রবিবারের তুলনায় কমেছে একদিনে মৃত্যুর সংখ্যাও। সোমবারের রিপোর্ট বলছে মৃতের সংখ্যা সাড়ে তিন হাজারের নিচে। গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৩ হাজার ৪১৭ জনের। এখনও পর্যন্ত দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ কোটি ৯৯ লক্ষ ২৫ হাজার ৬০৪ জন। মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২ লক্ষ ১৮ হাজার ৯৫৯। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনামুক্ত হয়েছেন ৩ লক্ষ ৭৩২ জন। আক্রান্তের পাশাপাশি সুস্থতার সংখ্যা বাড়ায় খানিকটা স্বস্তি ফিরেছে। বর্তমানে দেশের মোট অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা ৩৪ লক্ষ ১৩ হাজার ৬৪২। দেশে এখনও পর্যন্ত সবমিলিয়ে সুস্থ হয়েছেন ১ কোটি ৬২ লক্ষ ৯৩হাজার ৩ জন। এখনও পর্যন্ত দেশে টিকা পেয়েছেন মোট ১৫ কোটি ৭১ লক্ষ ৯৮ হাজার ২০৭ জন।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.