নয়াদিল্লি: ফের রাশিয়ার সঙ্গে সামরিক চুক্তি হল ভারতের। জরুরি অবস্থায় ব্যবহারের জন্য রাশিয়া থেকে অ্যান্টি ট্যাংক মিসাইল কিনতে চলেছে ভারত। Mi-35 অ্যাটাক হেলিকপ্টারে ব্যবহার করা হবে সেই মিসাইল।

বায়ুসেনা সূত্রে খবর, Strumatka নামে ওই অ্যান্টি ট্যাংক মিসাইল কেনার জন্য চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছে দুই দেশ। Mi-35 ও Mi-25- দুই ধরনের হেলিকপ্টারেও এটি ব্যবহার করা সম্ভব। জরুরি ভিত্তিতে এই চুক্তিতে স্বাক্ষর করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। যাতে মাত্র তিন মাসের মধ্যে ওই মিসাইল কিনে হেলিকপ্টারে মোতায়েন করা সম্ভব হয়।

এর আগেও এই একইভাবে Spice 2000 ও অন্যান্য বোমা ও মিসাইল কিনেছে ভারত। Spice 2000 বোমা কেনার জন্য ভারতের সঙ্গে চুক্তি হয় ইজরায়েলের। সেই অস্ত্রও তিন মাসের মধ্যে ভারতের আসবে বলে জানা গিয়েছে।

শত্রুপক্ষের ট্যাংকে যখন তখন আঘাত করতে Spike অ্যান্টি ট্যাংক মিসাইল রয়েছে ভারতের হাতে।

এবার রাশিয়ার সঙ্গে যে মিসাইল কেনার চুক্তি হয়েছে যা ২০০ কোটি টাকার। এর মাধ্যমে Mi-35 অ্যাটাক হেলিকপ্টার থেকে সহজেই শত্রুপক্ষকে টার্গেট করা যাবে। ভারতীয় বায়ুসেনায় দীর্ঘদিন ধরে রয়েছে এই Mi-35. তবে এবার এটির বদলে বায়ুসেনায় আনা হবে মার্কিন চপার Apache. জুলাই মাস থেকেই সেই চপার ভারতে আসতে শুরু করবে।

অনেক দিন ধরেই রাশিয়া থেকে মিসাইল আনতে চাইছে ভারত। তবে প্রায় এক দশক পর ভারত জরুরি ভিত্তিতে এই ধরনের চুক্তি স্বাক্ষর করল।