ইন্দোর:পেশোয়াদের শহরে ‘ডু অর ডাই’ ম্যাচে টস জিতে ব্যাটিং-এর সিদ্ধান্ত নিলেন অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ৷ পাঁচ ম্যাচের সিরিজ আপাতত ২-০ এগিয়ে রয়েছে টিম ইন্ডিয়া৷ আজকে জিতলে সিরিজ নিজেদের নামে করবে বিরাটবাহিনী৷ অন্যদিকে অজিদের সামনে এই ম্যাচ টিকে থাকার লড়াই৷

আরও পড়ুন: ক্রিকেটের নন্দনকাননে টস জিতে ব্যাটিং ভারতের

প্রথম দু’ম্যাচে জোড়া স্পিনার খেলিয়ে বাজিমাত করেছে টিম ইন্ডিয়া৷ ইডেনে আগের ম্যাচ নির্ধারিত ৫০ ওভারে মাত্র ২৫২ রান তোলে টিম ইন্ডিয়া৷ এই রানই সাফল্যের সঙ্গে রক্ষা করেছেন ভারতীয় বোলাররা৷ বিশেষ করে দুই তরুণ তুর্কী চাহাল-কুলদীপ বল হাতে নাস্তানাবুদ করে ছেড়েছেন অজিদের৷ ইডেনে হ্যাটট্রিক করে স্মিথদের কোমর ভেঙে দিয়েছিলেন কুলদীপ৷ পিছিয়ে ছিলেন না চাহালও৷ তিনিও পেয়েছে দু’উইকেট৷ ভূবনেশ্বর কুমারও ছ’ওভারে ৯ রান দিয়ে তুলে নিয়েছিলেন তিন উইকেট৷

আরও পড়ুন: ২৬ বছর পর কপিলকে ছুঁলেন কুলদীপ

স্মিথের ডেপুটি ওয়ার্নারের মতে ধোনির উপস্থিতিই অধিনায়ক হিসেবে পরিণত করছে কোহলিকে৷ অজি ওপেনারের মতে, ‘ধোনির মত ঠান্ডা মাথায় অধিনায়ক খুব কমই রয়েছে৷ দীর্ঘদিন ধরে ভারতীয় দলকে সার্ভিস দিয়েছেন মাহি৷ নেতৃত্বের ব্যাটনের হাত বদলের পর পরবর্তী অধিনায়ক কোহলিকে দারুণভাবে গাইড করে চলেছে প্রাক্তন অধিনায়ক৷’

আরও পড়ুন: ধোনির পরামর্শে পরিণত ক্যাপ্টেন কোহলি

মাঠের কোহলি-ধোনির ক্রিকেট রসায়ন অন্যান্য দলগুলির কাছে ঈর্ষনীয়৷ ডিআরএস নেওয়ার ক্ষেত্রে ধোনির মতামতকে সবসময়ই এগিয়ে রাখেন কোহলি৷ শুধু তাই নয়, ফিল্ডিংয়ের সময়ও বিপক্ষ দলের বিরুদ্ধে সমস্যায় পড়লে ধোনির থেকে পরামর্শ নিয়ে নেন তরুণ অধিনায়ক৷ ধোনির তিনশোতম ওয়ান ডে ম্যাচেও সেকথাই মেনে নিয়ে কোহলি জানিয়েছিলেন, ‘এই দলের বেশিরভাগ ক্রিকেটারই ধোনির নেতৃত্বে ক্রিকেটজীবন শুরু করেছে৷ আজও আমরা মাঠে ধোনিকেই আমাদের অধিনায়ক হিসেবে মানি৷’

আরও পড়ুন: স্মিথের দলে সচিন-ভাজ্জি, নেই বিরাট

রবিবার ম্যাচ জিতলেই সিরিজ পকেটে পুরবে টিম ইন্ডিয়া৷ অন্যদিকে সিরিজে টিকে থাকতে এই ম্যাচে জিততেই হবে স্মিথ অ্যান্ড কোং-কে৷ তৃতীয় ম্যাচে অস্ট্রেলিয়া দলে দুটি পরিবর্তন হয়েছে৷ ম্যাথু ওয়েডের জায়গায় দলে এসেছেন পিটার হ্যান্ডসকম৷ চোট সারিয়ে দলে ফিরেছেন ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চ৷