অকল্যান্ড: নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে টি-২০ সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচ জিতেও ব্যবধান বাড়াতে চায় টিম কোহলি৷ শুক্রবার ইডেন পার্কে সিরিজের প্রথম ম্যাচেই কিউয়িদের পর্যুদস্ত করে ভারত৷ ২০৪ রান তাড়া করে এক ওভার বাকি থাকতেই ৬ উইকেটে ম্যাচ জিতে নেয় ‘মেন ইন ব্লু’৷

রবিবার সেই ইডেন পার্কেই দ্বিতীয় ম্যাচের লড়াইয়ে নামবে দুই দল৷ প্রথম ম্যাচে ভারতের ব্যাটিং নজর কাড়লেও বোলাররা দাগ কাটতে পারেননি৷ ছ’জন বোলার খেলিয়েও ‘ব্ল্যাক ক্যাপস’-কে দুশোর মধ্যে বেঁধে রাখেতে পারেনি জসপ্রীত বুমরাহ, মহম্মদ শামিরা৷ দ্বিতীয় দলে বিশেষ পরিবর্তনের সম্ভাবনা নেয়৷ তবে বোলিং বিভাবে কিছু পরীক্ষানিরীক্ষা করতে পারে ভারতীয় থিঙ্কট্যাঙ্ক৷

পেস বোলিং বুমরাহ-শামি-ঠাকুর এই ত্রয়ীকে খেলিয়েছিল ভারত৷ পাশাপাশি পেস বোলিং অল-রাউন্ডার শিভম দুবেকেও খেলায় টিম কোহলি৷ কিন্তু বুরমাহ ছাড়া বাকি দু’জন অনেক বেশি রান খরচ করেন৷ শার্দুল ঠাকুর ৩ ওভারে একটি উইকেটের বিনিময়ে ৪৪ রান খরচ করেন৷ শামিও দাগ কাটতে ব্যর্থ হন৷ ৪ ওভারে কোনও উইকেট না-নিয়ে ৫৩ রান দেন শামি৷ সেখানে বুমরাহ চার ওভারে একটি উইকেট নিতে ৩১ রান খরচ করেছিলেন৷

ভারত হয়তো উইনিং কম্বিনেশন ভাঙতে চাইবে না৷ কিন্ত বোলিং একটু পরিবর্তন করলেও করতে পারে৷ শামি বা শার্দুলের পরিবর্তে নভদীপ সাইনিকে খেলাতে পারে ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্ট৷ ইডেন পার্কের বাইশ গজ ব্যাটসম্যানদের স্বর্গরাজ্য৷ ম্যাচে ৩৯ ওভারে ৪০৭ রান ওঠে৷ প্রথমে ব্যাটিং করে ২০৩ রান তুলেছিল নিউজিল্যান্ড৷ কিন্তু রান তাড়া করতে নেমে ১৯ ওভারে মাত্র ৪ উইকেট হারিয়ে ম্যাচ জিতে নেয় ভারত৷

‘হিটম্যান’ রোহিত শর্মা ব্যর্থ হলেও লোকেশ রাহুল, বিরাট কোহলি, শ্রেয়স আইয়ারের ব্যাটে হাসতে হাসতে ম্যাচ জিতে নেয় টিম ইন্ডিয়া৷ ২৭ বলে ৫৬ রানের বিস্ফোরক ইনিংস খেলেন রাহুল৷ ইনিংসে তিনটি ছয় ও চারটি চার মারেন কর্নাটকের এই ডানহাতি৷ ৩২ বলে একটি ছয় ও তিনটি বাউন্ডারি-সহ ৪৫ রান করেন কোহলি৷ দ্বিতীয় উইকেটে রাহুল ও বিরাট ৯৯ রান যোগ করে ভারতকে ম্যাচে ফেরান৷

তারপর মাত্র ২৯ বলে তিনটি ছক্কা ও পাঁচটি বাউন্ডাারির সাহায্যে ৫৮ রানে অপরাজিত থেকে ভারতকে সহজ জয়ে এনে দেন শ্রেয়স আইয়ার৷ দলকে জিতে ম্যাচের সেরা পুরস্কার জিতে নেন দিল্লির এই তরুণ৷