সিডনি: নটিংহ্যামে টেস্ট অভিষেক৷ সাউদাম্পটন ঘুরে ওভালে কেরিয়ারের তৃতীয় টেস্টেই ঝকঝকে সেঞ্চুরি৷ রাজকোট ও হায়রাবাদে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে ঠিক পরের দু’টি টেস্টে আউট হন নব্বইয়ের কোঠায়৷ অস্ট্রেলিয়ায় আসা যাবৎ প্রথম তিন টেস্টে ঘোরাফেরা করছিলেন ২৫ থেকে ৩৯ রানের মধ্যে৷

আরও পড়ুন: ডাবল সেঞ্চুরি হাতছাড়া পূজারার

অবশেষে সিডনিতে এসে আবার তিন অঙ্কে ঋষভ পন্ত৷ স্বভাবসুলভ আগ্রাসী ব্যাটংয়ে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম এবং টেস্ট কেরিয়ারের দ্বিতীয় শতরান করেন ভারতের তরুণ উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান৷ শুধু তাই নয়, নিমেশে দেড়শো রানের গণ্ডি টপকে কেরিয়ারের সর্বোচ্চ টেস্ট ইনিংস খেলেন তিনি৷

ক্রিজের অপর প্রান্তে ধ্বংসাত্মক মেজাজে ছিলেন অলরাউন্ডার রবীন্দ্র জাদেজাও৷ পন্তের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে রান তুলতে থাকেন জাড্ডুও৷ স্যার জাদেজা ঝড়ের গতিতে ব্যক্তিগত অর্ধশতরানে পৌঁছে যান৷ শতরানের ইঙ্গিত ছিল জাদেজার ব্যাটেও৷ তবে রান তোলার গতি বাড়ানোর চেষ্টায় তিনি আউট হয়ে বসা মাত্র ভারত প্রথম ইনিংসের সমাপ্তি ঘোষণা করে৷ ৭ উইকেটে দলগত ৬২২ রানের মাথায় প্রথম ইনিংস ডিক্লেয়ার করে দেন কোহলি৷

আরও পড়ুন: পূজারা প্রাচীরে রানের ইমারত ভারতের

লাঞ্চে ঋষভ অপরাজিত ছিলেন ব্যক্তিগত ২৭ রানে৷ দ্বিতীয় সেশনে ৬১ রান যোগ করেন তিনি৷ ৪টি বাউন্ডারির সাহায্যে ৮৫ বলে হাফসেঞ্চুরি পূর্ণ করা পন্ত চায়ের বিরতিতে নটআউট ছিলেন ৮৮ রান করে৷ টি ব্রেকের পর ব্যক্তিগত শতরান পূর্ণ করলেও অতীতের ভুল থেকে শিক্ষা নিয়েছেন বলে মনে হল না কোহলির সংসারের এই তরুণ তুর্কি৷

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে গত সিরিজে পর পর দু’টি ইনিংসে ৯২ রানে আউট হয়েছেন আগ্রাসনে নিয়ন্ত্রণ রাখতে না পেরে৷ সিডনিতেও নব্বইয়ের ঘরে একবার লায়নের বলে বড় শট খেলতে গিয়ে বল হাওয়ায় তুলে বসেছিলেন৷ ভাগ্য সুপ্রসন্ন থাকায় বল ফিল্ডারের হাতে পৌঁছয়নি৷ শেষমেশ বাউন্ডারির সাহায্যে ব্যক্তিগত শতরান পূর্ণ করেন৷

আরও পড়ুন: সিডনিতে গোলাপি ব্যাট-গ্লাভসে কোহলি

সেঞ্চুরি করেও অবশ্য দায়িত্ব কাঁধ থেকে ঝেড়ে ফেলেননি পন্ত৷ বরং ক্রমাগত বাউন্ডারিতে দেড়শো রানের গণ্ডিও পার করেন তিনি৷ শেষমেশ ব্যক্তিগত ১৫৯ রানে অপরাজিত থাকেন ঋষভ৷ ১৮৯ বলের ইনিংসে ১৫টি চার ও ১টি ছক্কা মারেন তিনি৷ টেস্টে এখনও পর্যন্ত এটিই তাঁর সর্বোচ্চ ইনিংস৷ এর আগে ওভালে আউট হয়েছিলেন ১১৪ রান করে৷

অন্যদিকে জাদেজা ৮৯ বলে হাফসেঞ্চুরি পূর্ণ করেন৷ পঞ্চাশের গণ্ডি ছুঁতে মাত্র একটি চার ও একটি ছক্কার সাহায্য নিয়েছিলেন জাদেজা৷ হাফসেঞ্চুরির পর অবশ্য ক্রিজে ঝড় তোলেন তিনি৷ শেষ পর্যন্ত সাতটি চার ও ১টি ছক্কার সাহায্যে ১১৪ বলে ৮১ রান করে লায়নের বলে আউট হন তিনি৷

আরও পড়ুন: সচিনকে টপকে গেলেন পূজারা

তার আগে চেতেশ্বর পূজারা নিশ্চিত দ্বিশতরান মাঠে ফেলে আসেন৷ ২২টি বাউন্ডারির সাহায্যে ৩৭৩ বলে ১৯৩ রান করে ক্রিজ ছাড়েন চেতেশ্বর৷ দিনের শুরুতেই হনুমা বিহারী আউট হন ৪২ রান করে৷ আগের দিন ময়াঙ্ক আগরওয়াল ৭৭, লোকেশ রাহুল ৯, বিরাট কোহলি ২৩ ও অজিঙ্কা রাহানে ১৮ রান করে প্যাভিলিয়নে ফিরেছিলেন৷

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে প্রথম ইনিংসে ১৭৮ রানের বিনিময়ে ৪টি উইকেট নেন নাথন লায়ন৷ ১০৫ রানের বিনিময়ে দু’টি উইকেট নেন জোস হ্যাজেলউড৷ ১২৩ রান খরচ করে একটি উইকেট দখল করেন মিচেল স্টার্ক৷

আরও পড়ুন: সচিনের গুরুকে স্মরণ করে মাঠে কোহলিরা

জবাবে ব্যাট করতে নেমে দিনেশ শেষ দশ ওভারে অস্ট্রেলিয়া কোনও উইকেট না হারিয়ে ২৪ রান তুলেছে৷ যদিও ইনিংসের তৃতীয় ওভারে মহম্মদ শামির বলে উসমান খোওয়াজার অত্যন্ত সহজ ক্যাচ হাতছাড়া করেন ঋষভ পন্ত৷ শূন্য রানে জীবনদান পাওয়া খোওয়াজা দিনের শেষ অপরাজিত রয়েছেন ৫ রান করে৷ ব্যক্তিগত ১৯ রানে ব্যাট করছেন মার্কাস হ্যারিস৷

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।