বুয়েনস আয়রস: প্রথম ম্যাচে পেনাল্টি শুট-আউটে থ্রিলার জয়ের পর হকি প্রো লিগের দ্বিতীয় ম্যাচেও আর্জেন্তিনাকে তাদেরই ডেরায় হারাল ভারত। রবিবার বুয়েনস আয়রসে অলিম্পিক সোনাজয়ীদের ৩-০ গোলে হারাল মেন ইন ব্লু। ভারতের হয়ে জয়সূচক গোলগুলি করেন অধিনায়ক হরমনপ্রীত সিং, ললিত উপাধ্যায় এবং মনদীপ সিং।

এদিন জয়ের ফলে হকি প্রো লিগে পয়েন্টের নিরিখে চতুর্থস্থানে উঠে এল টিম ইন্ডিয়া। আপাতত তারা অস্ট্রেলিয়ার চেয়ে এক পয়েন্ট এগিয়ে। আত ম্যাচ থেকে ভারতের সংগ্রহে ১৫ পয়েন্ট। অন্যদিকে ১২ ম্যাচে ১১ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকায় ষষ্ঠস্থানে আর্জেন্তিনা। আসন্ন টোকিও অলিম্পিকে পুল-এ’তে আর্জেন্তিনার সঙ্গেই রয়েছেন ভারতীয় দল। এছাড়াও পুল-এ’তে বাকি দলগুলো হল অস্ট্রেলিয়া, স্পেন, নিউজিল্যান্ড এবং হোম টিম জাপান। প্রথম ম্যাচে হারের পর দ্বিতীয় ম্যাচে রবিবার দাপুটে শুরু করে আর্জেন্তিনা।

ভারতের গোলরক্ষক কৃষাণ পাঠক ত্রাতা না হয়ে দাঁড়ালে মার্টিন ফেরেইরো দু’টি ক্ষেত্রে আর্জেন্তিনাকে এগিয়ে দিতে পারতেন। সেটা না হওয়ার ১১ মিনিটে দিনের প্রথম পেনাল্টি কর্নার থেকেই ফায়দা তোলে ভারত। গোল করে দলকে এগিয়ে দেন হরমনপ্রীত। ম্যাচের দ্বিতীয় কোয়ার্টারে আর্জেন্তিনা গোলরক্ষক জুয়ান ভিভালদির একটি দুরন্ত প্রতিরোধ থেকে ফিরতি বল জালে রাখেন ললিত উপাধ্যায়। আর আর্জেন্তিনার কফিনে শেষ পেরেকটি ম্যাচ শেষের ঠিক দু’মিনিট আগে পুঁতে দেন মনদীপ সিং। পড়ে গিয়েও ক্লোজ রেঞ্জ থেকে নিশানায় অব্যর্থ থাকেন ভারতীয় স্ট্রাইকার।

ম্যাচের সেরা ভারতের গোলরক্ষক কৃষাণ পাঠক বলেন, ‘আমরা দুর্দান্ত রক্ষণ সামলেছি। ওরাও রক্ষণে অনেক শক্তিশালী ছিল কিন্তু আমরা অনেক সুযোগ তৈরি করেছি এবং গোল করেছি। তবে এখনও অনেক বিষয়ে উন্নতি করতে হবে। জিতলেও এই ম্যাচ থেকে অনেক কিছু শেখার আছে। আমাদের আরও উন্নতি করতে হবে।’ উল্লেখ্য, প্রথম ম্যাচে নির্ধারিত সময় শেষ হওয়ার মাত্র ৬ সেকেন্ড আগে সমতা ফিরিয়ে ম্যাভ পেনাল্টি শুট-আউটে নিয়ে গিয়েছিল মেন ইন ব্লু।

সেখানেই প্রতিপক্ষকে ৩-২ গোলে হারিয়ে বোনাস পয়েন্ট সংগ্রহ করে ভারতীয় দল।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.