নয়াদিল্লি: ১ জুন থেকে লকডাউন একটু একটু করে উঠে যাবে। শিথিল হবে যায় নিয়ম। কিন্তু মে মাসের শেষ দিনেও সংক্রমণ কমার কোনও খবর নেই।

গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা ৮৩৮০। ভারতের আক্রান্তের সংখ্যা ছুঁল ১.৮২ লক্ষ। মৃতের সংখ্যা ৫০০০। গত ২৪ ঘণ্টায় ১৯৩ জনের মৃত্যু হয়েছে।

এই প্রথম বার একদিনের রেকর্ডে ৮০০০ পেরোল আক্রান্তের সংখ্যা। বিশ্বে করোনা আক্রান্ত দেশগুলির মধ্যে সবথেকে বেশি সংক্রমণের তালিকায় নবম স্থানে রয়েছে ভারত। গত তুন দিনে হু হু করে বেড়েছে সংক্রমণ।

ভারতে এক সপ্তাহে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ৫০,০০০।

এদিকে, আগামী ৩০ জুন অবধি নতুন করে লকডাউনের ঘোষণা করল কেন্দ্র। তবে ৮ জুনের পর থেকে শপিং মল, রেস্তোরাঁ খোলার ক্ষেত্রে ছাড় ঘোষণা করা হয়েছে। তবে কন্টেইনমেন্ট জোন বা সিল এলাকায় কোনও মল বা রেস্তোরাঁ খোলা চলবে না বলে জানানো হয়েছে।

কন্টেনমেন্ট জোন ছাড়া অন্য এলাকায় ধর্মীয়স্থান, হোটেল এবং রেস্টুরেন্ট ৮ তারিখের পর খোলার অনুমতি দিয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক।

আরও পড়ুন – LokDown 5.0: ৩০ জুন পর্যন্ত লকডাউন জারি কনটেননেন্ট জোনে

বর্তমান পর্যায়ে আনলক ১ -এ অর্থনীতির দিকে বিশেষ নজর দেওয়া হচ্ছে বলে জানাচ্ছে গাইডলাইন। রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলগুলির সঙ্গে পরামর্শের পরেই এই নতুন গাইডলাইন জারি করা হয়েছে বলে জানিয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক।

এর আগে যেসব ক্ষেত্রে বিধি নিষেধ ছিল, এবার কনটেনমেন্ট জোনের বাইরে সেগুলি সবই চালু করা হচ্ছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রকের জারি করা নিয়মের ভিত্তিতে সব কিছু চালু হবে। অন্যদিকে স্কুলগুলির সঙ্গে পরামর্শের পরে জুলাই মাসে স্কুল পুনরায় চালু করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। তবে স্কুল-কলেজ খোলার আগে অভিভাবক, রাজ্য সরকারের সঙ্গে আলোচনা করা হবে বলে জানানো হয়েছে।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।