ওয়াশিংটন: দূষণ প্রতিনিয়ত বাড়ছে ভারতে। দূষণের মৃত্যু হচ্ছে বহু মানুষের। সরব হয়েছেন অনেকেইল নিঃশ্বাস নেওয়ার আধিকারটুকু কেড়ে নেওয়া হচ্ছে, এমন দাবিও উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

এবার দূষণ নিয়ন্ত্রণে ভারত, রাশিয়া এবং চিনের সমালোচনায করলেন মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি জানান, এই সমস্ত দেশে বায়ু দূষিত। শুধু তাই নয় ভারত চিন ও রাশিয়ার মতো দেশগুলি দূষণ নিয়ন্ত্রণে জন্য নিজেদের ভূমিকাও ঠিক ভাবে পালন করে না বলেই দাবি ট্রাম্পের।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানান আমেরিকার পরিবেশ অন্যান্য দেশের তুলনায় ভাল। পরিবেশ রক্ষার জন্য প্যারিস চুক্তি থেকে ট্রাম্পের নেতৃত্বেই বেরিয়ে গিয়েছিল আমেরিকা। সেই ট্রাম্প ওই সাক্ষাৎকারে জানান প্রিন্স চার্লসের সঙ্গে মিনিট পনেরো কথা হবে বলে ঠিক ছিল, কিন্তু শেষমেশ আমরা প্রায় দেড় ঘন্টা কথা বলেন তাঁরা।

আবহাওয়ার পরিবর্তন নিয়ে তিনি যথেষ্ট ভাবিত বলেই দাবি মার্কিন প্রেসিডেন্টের। তিনি বলেন, ”আমি তাকে জানিয়েছি বিভিন্ন রকম তথ্য বলছে আমেরিকার পরিবেশ পৃথিবীর অন্য দেশগুলোর তুলনায় যথেষ্টই ভালো।”

ট্রাম্প বলেন ভারত, রাশিয়া বা চিনের মত দেশগুলি জানেই যা যে পরিবেশ সংরক্ষণ কীভাবে করতে হয়। পরিবেশ সংরক্ষণ সম্পর্কে এই দেশগুলির প্রাথমিক ধারণা নেই বলেই মনে করেন মার্কিন রাষ্ট্রপতি। আরও কয়েক ধাপ এগিয়ে তিনি বলেন, ‘আমি কোনও শহরের নাম করতে চাই না। কিন্তু এমন কিছু কিছু শহর আছে যেগুলোতে গেলে নিশ্বাস পর্যন্ত নিতে কষ্ট হয়।’

সাক্ষাৎকার দেওয়ার আগে প্রিন্স চার্লসের সঙ্গে বৈঠক করেন ট্রাম্প। সেখানে কয়েকটি বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়। প্রিন্স চার্লস পরিবেশ দূষণ নিয়ে বছর চারেক আগে তিনি একটি সচেতনতা অভিযানও শুরু করেছিলেন। পরিবেশ ধ্বংস করার প্রভাব কতটা খারাপ হতে পারে তা বোঝাতেই অভিযান করেন প্রিন্স। আবহাওয়া সংক্রান্ত বিষয়ে নিয়ে একসঙ্গে পথ চলতে প্যারিস চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। সে সময় মার্কিন রাষ্ট্রপতি ছিলেন বারাক ওবামা।