ওয়াশিংটন: করোনা নিয়ে ভারত সম্পর্কে ট্রাম্পের অভিযোগে অস্বস্তি বাড়ল মোদী সরকারের। করোনাভাইরাস নিয়ে চিনের পাশাপাশি ভারতের দিকে আঙুল তুললেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের জন্য প্রতিদ্বন্দী জো বাইডেনের সঙ্গে প্রথম বিতর্ক অনুষ্ঠানে ট্রাম্প এমন মন্তব্য করেছেন।

এই বিতর্ক সভায় জো বাইডেন ট্রাম্পের সামনে প্রশ্ন তুলেছিলেন মার্কিন মুলুকে ৭০ লক্ষ করোনা আক্রান্তের বিষয়ে। তখন জবাব দিতে গিয়ে তিনি মন্তব্য করেন, করোনা আক্রান্ত হয়ে কত জনের মৃত্যু হচ্ছে সেই প্রকৃত সংখ্যাটা ভারত, চিন, রাশিয়া কেউই ঠিকমত দিচ্ছে না।

সম্প্রতি চিনের সঙ্গে আমেরিকার সম্পর্ক খুব একটা ভালো নয়। করোনাভাইরাস নিয়ে বারবার চিনের দিকে আঙ্গুল তুলতে দেখা গিয়েছে মার্কিন প্রেসিডেন্টকে । অন্যদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সুসম্পর্ক রয়েছে বলেই ধারণা কূটনৈতিক মহলে। সেইখানে এভাবে করোনা নিয়ে ভারতের ভূমিকার সমালোচনা করার একটা তাৎপর্য রয়েছে বলে মনে করছে বিভিন্ন মহল।

ওইদিনই মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন পর্বে প্রথম বিতর্কের জন্য মুখোমুখি হয়েছিলেন ট্রাম্প এবং জো বাইডেন। ক্লিভল্যান্ডের বিতর্ক সভাটিতে বাইডেন ট্রাম্পকে সরাসরি মিথ্যেবাদী বলে কটাক্ষ করেন। ট্রাম্প সম্পর্কে বাইডেনের বক্তব্য, উনি যা বলেন সবই মিথ্যা, সবাই জানে উনি মিথ্যুক।

তাছাড়া গোটা বিশ্বে সবচেয়ে বেশি করোনা আক্রান্ত মানুষ রয়েছেন আমেরিকায় । মৃতের সংখ্যাতেও শীর্ষে। এই প্রসঙ্গ টেনে বাইডেন কটাক্ষ করেন, ৭০ লক্ষ মানুষ ভাইরাসে সংক্রমিত অথচ এই ব্যাপারে বর্তমান মার্কিন প্রেসিডেন্টের কোনওরকম পরিকল্পনা নেই। পাশাপাশি জনতার উদ্দেশ্যে তিনি প্রশ্ন ছুঁড়ে দেন, কতজন ঘুম থেকে উঠে দেখেছেন খাবার টেবিলে চেয়ার ফাঁকা?

প্রতিদ্বন্দ্বীর কাছ থেকে এভাবে আক্রমণ আশায় পাল্টা চাল দিতে চান ট্রাম্প। টেনে আনেন ভারত চিন রাশিয়া প্রসঙ্গ। ভাষণ দিতে গিয়ে প্রশ্ন তুলে অভিযোগ করেন, জানা আছে কি চিনে কতজন মারা গিয়েছে? রাশিয়ায় কত জনের মৃত্যু হয়েছে অথবা ভারতে কতজন করোনার বলি হয়েছেন? এরা কেউ প্রকৃত সংখ্যা জানাচ্ছে না। পাশাপাশি ট্রাম্প দাবি করেন, ডেমোক্রাট গভর্নররা এই পরিস্থিতিতে ট্রাম্প ভালো কাজ করছেন বলে প্রশংসা করেছেন।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।