হায়দরাবাদ: টি-২০ বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের বিরুদ্ধে সিরিজের প্রথম ম্যাচেই রুদ্ধশ্বাস জয় বিরাটবাহিনীর৷

২০৮ রান তাড়া করতে নেমে শুরুতেই হিটম্যানের উইকেট হারালেও লোকেশ রাহুল ও বিরাট কোহলির দুরন্ত লড়াইয়ে ম্যাচে ফেরে ভারত৷ দ্বিতীয় উইকেটে কোহলি ও রাহুলের সেঞ্চুরি পার্টনারশিপে ব্যাকফুটে চলে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ৷ এখান থেকে আর ম্যাচে ফিরতে পারেনি পোলার্ড-হোল্ডাররা৷ রাহুল কেরিয়ারে ৭ নম্বরে হাফ-সেঞ্চুরি করে ডাগ-আউটে ফিরলেও বিরাটকে সঙ্গ দেন ঋষভ পন্ত৷ শেষ পর্যন্ত একাই ম্যাচ বেরে করে নেন ক্যাপ্টেন কোহলি৷ ৫০ বলে ৬টি ছক্কা ও ৬টি বাউন্ডারির সাহায্যে ৯৪ রানে অপরাজিত থাকেন বিরাট৷ সেই সঙ্গে আন্তর্জাতিক টি-২০ ক্রিকেটে নিজের সেরা স্কোরটি করেন কোহলি৷

প্রথম বলেই ছক্কা হাঁকিয়ে বিরাটের আস্থার মর্যাদা দেন পন্ত৷ শুরুতে বিরাট ছন্দ না-থাকলেও রাহুল আউট হওয়ার পর খোলস ছেড়ে বেড়িয়ে আসেন ক্যাপ্টেন কোহলি৷ তৃতীয় উইকেটে পন্তের সঙ্গে হাফ-সেঞ্চুরি যোগ করে দলকে নিশ্চিত জয়ে পৌঁছে দেন বিরাট৷ এদিন ৩৬ বলে হাফ-সেঞ্চুরিতে পৌঁছন কোহলি৷ আন্তর্জাতিক টি-২০ কেরিয়ারে এটি ২৩তম হাফ-সেঞ্চুরি বিরাটের৷

ক্যারিবায়নদের বিরুদ্ধে দু’শোর বেশি রান তাড়া করেত নেমে শুরু করেন রাহুল আর শেষ করে কোহলি৷ আন্তর্জাতিক টি-২০ কেরিয়ারে সপ্তম হাফ-সেঞ্চুরি করার পাশাপাশি হাজার রানের মাইলস্টোন টপকে যান রাহুল৷ স্বপ্নের ফর্মে থাকা রাহুল দলকে জিতিয়ে আসতে পারেননি৷ ৪০ বলে চার ছক্কা ও পাঁচটি বাউন্ডারির সাহায্যে ৬২ রানে ডাগ-আউটে ফেরেন রাহুল৷ রাহুল যেখানে শেষ করেন, সেখান থেকে শুরু করেন কোহলি৷ ৩৬ বলে হাফ-সেঞ্চুরিতে পৌঁছন বিরাট৷

এর আগে রাজীব গান্ধী আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে প্রথম ব্যাটিং করে হেটমাইয়ার, পোলার্ড ও লুইসের ব্যাটে ভারতের সামনে দু’শোর বেশি রানের টার্গেট রাখে ওয়েস্ট ইন্ডিজ৷ ভারতীয় বোলারদের নিয়ে ছেলেখেলা করেন বিগ-ম্যান পোলার্ড ও হোল্ডার৷ এর আগের ১৭ বলে চার ছক্কা ও তিনটি বাউন্ডারি-সহ ৪০ রান করে ওয়াশিংটন সুন্দরের বলে এলবিডব্লিউ হন লুইস৷ ৪১ বলে চার ছাক্কা ও দু’টি বাউন্ডারি-সহ ৫৬ রান করেন হেটমাইয়ার৷ ১৯ বলে চারটি ছয় ও একটি চার-সহ ৩৭ রান করে ডাগ-আউটে ফেরেন পোলার্ড৷ এর পর প্রাক্তন ক্যারিবিয়ান অধিনায়ক জেসন হোল্ডার ৯ বলে ২৪ রান কর অপরাজিত থাকেন৷

টস জিতে ফিল্ডিং নেওয়ার পর বিরাট জানিয়েছিলেন, রান তাড়া করতে বেশি পছন্দ করে তার দল৷ সেটাই করে দেখাল কোহলি অ্যান্ড কোং৷ ১৮.৪ ওভারে ছক্কা হাঁকিয়ে ম্যাচ শেষ করে দেন ক্যাপ্টেন৷ ৮ বল বাকি থাকেই ৬ উইকেটে হাসতে হাসতে ম্যাচ জিতে নিল ভারত৷ সেই সঙ্গে তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজে ১-০ এগিয়ে গেল বিরাটবাহিনী৷