নয়াদিল্লি: পাকিস্তানে ভারতীয় কূটনীতিকদের হেনস্থার ঘটনায় ক্ষুব্ধ বিদেশমন্ত্রক৷ অবিলম্বে তাদের নিরাপত্তা বাড়াতে ইসলামাবাদের কাছে আর্জি জানাল নয়াদিল্লি৷ পাকিস্তানের তরফে ভারতের আবেদনে এখনও প্রতিক্রিয়া দেওয়া হয়নি৷

শ্রীলঙ্কায় বিস্ফোরণের পর পরই পাকিস্তানে নিযুক্ত দুই ভারতীয় কূটনীতিককে হেনস্থার শিকার হতে হয়৷ এতে আরও চিন্তায় পড়ে যায় নয়াদিল্লি৷ শ্রীলঙ্কা বিস্ফোরণের পর ভারতীয় উপমহাদেশের অনেক দেশে ভারতীয় দূতাবাসগুলির নিরাপত্তা বাড়ানোর আর্জি সংশ্লিষ্ট দেশগুলির কাছে করে ভারত৷ কারণ শ্রীলঙ্কা বিস্ফোরণে ভারতীয় দূতাবাস ছিল হামলাকারীদের টার্গেটে৷

এদিকে পাকিস্তানে সাম্প্রতিক কূটনীতিক হেনস্থার ঘটনার বিবরণ দিয়ে বিদেশমন্ত্রকের এক আধিকারিক জানান, এপ্রিল মাসে পাকিস্তানের ফারুকাবাদে অবস্থিত একটি গুরুদ্বারাতে যান দুই কূটনীতিক৷ সেখানে একটি ঘরে তাদের বন্ধ করে রাখা হয়৷ হুঁশিয়ারি দিয়ে তাদের বলা হয়, আর যেন তাঁরা গুরুদ্বারাতে না আসেন৷ দুই কূটনীতিককে হেনস্থা করার অভিযোগ ওঠে পাকিস্তানের নিরাপত্তা রক্ষীদের বিরুদ্ধে৷

অতীতেও এমন ঘটনা ঘটেছে৷ যেখানে ভারতীয় কূটনীতিকরা বারবার পাকিস্তানের নিরাপত্তা রক্ষীদের হাতে হেনস্থার শিকার হয়েছেন৷ কিন্তু গত বছর ডিসেম্বর মাস থেকে এই ধরনের ঘটনা আরও বেড়ে যায়৷ ভারতীয় কূটনীতিকদের কাজে বাধা দেওয়া, যেখানে সেখানে তাদের আটক করে প্রশ্ন করা হয়েছে৷ এমনকী তাদের উপর নজর রাখা শুরু করে নিরাপত্তা রক্ষীরা৷

এই সব ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ভারত বারবার পাকিস্তানকে কূটনীতিকদের হেনস্থার অভিযোগের তদন্তের আর্জি জানিয়েছে৷ এই বছর মার্চ মাসে বিদেশমন্ত্রকের তরফে পাকিস্তানকে দু’বার চিঠি লিখে সেই এক কথা জানানো হয়৷ পাকিস্তানকে মনে করিয়ে দেওয়া হয়, কূটনীতিকদের পরিবারদের হেনস্থার ঘটনা ভিয়েনা কনভেনশনের বিরোধী৷ অভিযোগ, ভারতের চিঠির পরেও পাকিস্তান কূটনীতিকদের নিরাপত্তা বাড়াতে বিশেষ কোনও ব্যবস্থা নেয়নি৷