নটিংহ্যাম: বৃষ্টিতে ভেস্তে গেলে ভারত-নিউজিল্যান্ড লড়াই৷ দু-দলের মধ্যে এক পয়েন্ট করে ভাগ হয়ে গেল৷ তিন ম্যাচে পাঁচ পয়েন্ট নিয়ে লিগ তালিকায় তিন নম্বরে উঠে এল ভারত৷ ৪ ম্যাচে সাত পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষস্থান ধরে রাখল নিউজিল্যান্ড৷ আর ৪ ম্যাচ খেলে ৬ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয়স্থানে গতবারের চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া৷

‘রেইন রেইন গো অ্যাওয়ে…টিম ইন্ডিয়া ওয়ান্টস টু প্লে’। ট্রেন্ট ব্রিজের গ্যালারিতে প্ল্যাকার্ড হাতে ক্রিকেট অনুরাগীর প্রার্থনা কাজে এল না৷ কেবল এই ক্রিকেট অনুরাগীই নন, বিশ্বকাপ অনুরাগীদের প্রত্যেকেরই হয়তো বরুণ দেবতার কাছে ছিল একটাই আকুতি। মঙ্গলবারই গ্রুপ পর্বের ম্যাচগুলিতে রিজার্ভ ডে না রাখার কারণ ব্যাখ্যা করেছেন ওয়ার্ল্ড কাপ সিইও ডেভ রিচার্ডসন। কিন্তু তাতে মোটেই চিড়ে ভেজেনি অনুরাগীদের। বরং হতাশা বাড়িয়ে ট্রেন্ট ব্রিজে ভারত-নিউজিল্যান্ড ম্যাচও ভেস্তে যাওয়ার বিশ্বকাপ আয়োজক কমিটি আরও চাপে পড়ল।

ভ্রূকুটি ছিলোই। আশঙ্কা সত্যি প্রমাণিত করে সকাল থেকেই নটিংহ্যামের আকাশের মুখ ছিল ভার। রৌদ্দুরের দেখা তো নয়, বরং বলা ভালো গ্রাউন্ডসম্যানদের নাচিয়ে ছেড়ছে বেহায়া বৃষ্টি। দফায় দফায় মাঠ পরিদর্শনে আসেন আম্পায়াররা। তবে খেলা শুরু হওয়া তো দূরঅস্ত, নির্ধারিত সময়ের কয়েক ঘণ্টা অতিক্রান্ত হলেও ট্রেন্ট ব্রিজে টস করে উঠতে পারেননি দু’দলের অধিনায়ক। বেশ কয়েকবার বৃষ্টি থামায় পিচের কভার সরিয়ে নেওয়া হলেও বারংবারই অনুরাগীদের ধৈর্য্যচ্যুতি ঘটায় আবহাওয়া।

ভারতীয় সময় বিকেল ৬টায় মাঠ পরিদর্শনে আসেন দুই আম্পায়ার পল রাইফেল ও মারাইস এরাসমস। তবে আউটফিল্ড ভিজে থাকায় ম্যাচ শুরু করার কোনও ঝুঁকি নেননি আম্পায়ারদ্বয়। শেষ পর্যন্ত ভারতীয় সময় সাড়ে ৭টায় ম্যাচ পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়৷ ফলে দু-দলই এক পয়েন্ট করে পায়৷ এই নিয়ে বিশ্বকাপে মাত্র ১৫ দিনে চারটি ম্যাচ বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত৷ পাকিস্তান-শ্রীলঙ্কা, দক্ষিণ আফ্রিকা-ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কার পর বৃহস্পতিবার ট্রেন্ট ব্রিজে বৃষ্টি থাবা বসায় ভারত-নিউজিল্যান্ড ম্যাচে৷

টুর্নামেন্টে এখনও পর্যন্ত অপরাজিত থেকে অবশ্য রবিবার পাকিস্তানের বিরুদ্ধে নামছে ভারত৷ প্রথম ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ৬ উইকেটে জয় দিয়ে বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করে বিরাটবাহিনী৷ তার পর গতবারের চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়াকে ৩৬ রানে হারিয়ে বিশ্বকাপে সুহানা-সফর চলছিল কোহলিবিগ্রেডের৷ কিন্তু এদিন গতবারের রানার্স নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে তার না কাটলেও ম্যাঞ্চেস্টার মহারণের আগে ছন্দ হারাল কোহলি অ্যান্ড কোং৷