লিঙ্কন: মহম্মদ সিরাজ ও আবেশ খানের পেস জুটি নিউজিল্যান্ড-এ দলের বিরুদ্ধে ৪ দিনের দ্বিতীয় বেসরকারি টেস্টের প্রথমদিনে লড়াইয়ে রাখল ভারতীয়-এ দলকে। যদিও প্রথম দিনের শেষে কিউয়িরা ব্যাকফুটে এমনটা বলা যাবে না কখনই।

প্রথম টেস্ট ড্র হওয়ার পর দ্বিতীয় টেস্টে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় নিউজিল্যান্ড। টপ ও মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানদের মিলিত প্রচেষ্টায় নিউজিল্যান্ড প্রথম দিনের শেষে তাদের প্রথম ইনিংসে ৫ উইকেটের বিনিময় ২৭৬ রান তুলেছে। হাফ-সেঞ্চুরি করেছেন গ্লেন ফিলিপস। ব্যক্তিগত অর্ধশতরানের দোরগোড়ায় অপরাজিত রয়েছেন ডেন ক্লেভার।

প্রথম উইকেটের জুটিতে ৬৭ রান যোগ করেন দুই কিউয়ি ওপেনার হামিশ রাদারফোর্ড ও উইল ইয়ং। ইনিংসের শুরুটা ভালো করেও লাঞ্চের ঠিক আগে একজোড়া উইকেট হারায় নিউজিল্যান্ড। রাদারফোর্ড ৭৯ বলে ৪০ রান করে মোহাম্মদ সিরাজের বলে উইকেটকিপার কেএস ভরতের দস্তানায় ধরা দেন। রাচিন রবীন্দ্র ৯ বলে ১২ রান করে সিরাজের বলেই বোল্ড হন।

ইয়ং ১০১ বলে ২৬ রান করে শাহবাজ নদিমের বলে স্ট্যাম্প আউট হন। ফিলিপস টিম সেফার্তকে সঙ্গে নিয়ে দলের ইনিংসকে টেনে নিয়ে যান। শেষমেশ ব্যক্তিগত ৬৫ রানের মাথায় আবেশ খানের বলে আউট হন তিনি। ৮০ বলের আগ্রাসী ইনিংসে ৯টি ও ১টি ছক্কা মারেন ফিলিপস। সেফার্তকেও আউট করেন আবেশ। ৬৪ বলে ৩০ রান করে শুভমন গিলের হাতে ধরা দেন তিনি।

ডারিল মিচেলকে সঙ্গে নিয়ে দিনের বাকি সময়টুকু নির্বিঘ্নে কাটিয়ে দেন ক্লেভার। আপাতত প্রথম দিনের শেষে মিচেল ৩৬ ও ক্লেভার ব্যক্তিগত ৪৬ রানে অপরাজিত রয়েছেন। মহম্মদ সিরাজ ও আবেশ খান ২টি করে উইকেট নিয়েছেন। ১টি উইকেট নিয়েছেন শাহবাজ নাদিম। রবিচন্দ্রন অশ্বিন ২২ ওভার হাত ঘুরিয়েও কোনও উইকেট তুলতে পারেননি।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।