মেলবোর্ন: নিশ্চিত শতরান মাঠে ফেলে এলেন বিরাট কোহলি৷ দ্বিতীয় দিনের লাঞ্চের আগে পর্যন্ত লক্ষ্যে স্থির থাকলেও লাঞ্চের পর মনোসংযোগে সামান্য চিড় ধরতেই বিপর্যয়ের মুখে পড়েন ভারত অধিনায়ক৷ না হলে পারথের পর একসময় মেলবোর্নেও তিন অঙ্কের ইনিংসের দিকে এগচ্ছিলেন তিনি৷

আরও পড়ুন: পূজারার শতরান, লাঞ্চে জাঁকিয়ে বসেছে ভারত

বক্তিগত ৮২ রানের মাথায় মিচেল স্টার্কের শর্ট পিচ বলে আপার কাটে ছক্কা মারতে গিয়ে থার্ডম্যান বাউন্ডারিতে অ্যারন ফিঞ্চের হাতে ধরা পড়ে যান কোহলি৷ দলনায়কে অনুসরণ করে ক্রিজ ছাড়েন শতরান করা চেতেশ্বর পূজারাও৷ রোহিত শর্মাকে সঙ্গে নিয়ে চায়ের বিরতির আগে পর্যন্ত সময়টুকু নির্বিঘ্নে কাটিয়ে দেন অজিঙ্কা রাহানে৷ আপাতত দ্বিতীয় দিনের চায়ের বিরতিতে ভারত তাদের প্রথম ইনিংসে ৪ উইকেট হারিয়ে ৩৪৬ রান তুলেছে৷

আরও পড়ুন: দেশের সর্বোচ্চ উইকেটশিকারী হলেন তারকা পেসার

সেঞ্চুরি হাতছাড়া হলেও মেলবোর্নে অনবদ্য নজির গড়েন কোহলি৷ বক্সিং ডে টেস্টে ৮২ রানের ইনিংস খেলার পথে বিরাট এক ক্যলেন্ডার বর্ষে দেশের বাইরে সব থেকে বেশি রান করা ভারতীয় ক্রিকেটারে পরিণত হন৷ পারথের পর ২০১৮ সালে বিদেশে কোহলির টেস্ট রান ছিল ১০৬৫৷ রেকর্ড ছিল রাহুল দ্রাবিড়ের নামে৷ ২০০২ সালে বিদেশের মাঠে টেস্টে দ্রাবিড় ১১৩৭ রান করেছিলেন৷ অর্থাৎ জ্যামিকে টপকে যেতে কোহলির দরকার ছিল ৭৩ রান, যা তিনি সংগ্রহ করে নেন দ্বিতীয় দিনের লাঞ্চের পরেই৷

আরও পড়ুন: প্রথমদিনের শেষে চালকের আসনে ভারত

পূজারা কামিন্সের নীচু হয়ে যাওয়া বলে বোল্ড হন৷ ফিরে যাওয়ার আগে ৩১৯ বলে ১০৬ রান করেন চেতেশ্বর৷ চায়ের বিরতিতে রাহানে ব্যাট করছিলেন ব্যক্তিগত ৩০ রানে৷ রোহিত অপরাজিত ছিলেন ১৩ রান করে৷