নয়াদিল্লি: শুক্রবার আয়কর দপ্তর জানালো গত এপ্রিল মাস থেকে এখনো পর্যন্ত মোট আয়কর রিফান্ড করা হয়েছে ২৬২৪২ কোটি টাকা ১৬.৮৪ লক্ষ করদাতাকে। করোনা সংকটের কারণে জনগণের হাতে নগদের ব্যবস্থা করতে এমন ব্যবস্থা করা হয়েছে। সেন্ট্রাল বোর্ড অফ ডিরেক্ট ট্যাক্সেস (সিবিডিটি) এর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, পয়লা এপ্রিল থেকে ২১মে পর্যন্ত ১৬,৮৪,২৯৮ জন অ্যাসেসি করদাতাকে আয়কর রিফান্ড ‌ করা হয়েছে।

১৪৬৩২ কোটি টাকা আয়কর রিফান্ড করা হয়েছে ১৫,৮১,৯০৬ জন অ্যাসেসিকে এবং কর্পোরেট ট্যাক্স রিফান্ড ‌ করা হয়েছে ১১,৬১০ কোটি টাকা ১,০২,৩৯২ জন অ্যাসেসসিকে । এই রিফান্ড প্রক্রিয়ার গতি আরও বেড়েছে গত সপ্তাহে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন আত্মনির্ভর ভারত ঘোষণার পর থেকে।

গত সপ্তাহে প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদী ২০ লক্ষ কোটি টাকার প্যাকেজ ঘোষণা করেন। তারপর পাঁচ দিন ধরে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী একে একে সেই প্যাকেজ সংক্রান্ত ঘোষণা করেন। তখন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মালা সীতারমন জানিয়েছিলেন, রিফান্ড দিতে দেরি করা হবে না।‌ তিনি অনুধাবন করেছিলেন, এইসময় লোকেদের রিফান্ড টাকাটা ফেরত পাওয়া দরকার। প্রসঙ্গত সিবিডিটি ১৬মে শেষ হওয়া সপ্তাহে ২০৫০.৬১ কোটি টাকা রিফান্ড করা হয়েছিল ৩৭,৫৩১ জন আয়কর অ্যাসেসসি এবং ৮৬৭.৬২ কোটি টাকা কর্পোরেট ট্যাক্স ফেরত দেওয়া হয়েছিল ২৮৭৮ কর্পোরেট ট্যাক্স অ্যাসেসসিকে।

২১মে শেষ হওয়া এই সপ্তাহের অর্থাৎ ১৭-২১মে আরও ১২২৭৬৪ আয়কর অ্যাসেসসিকে মোট ২৬৭২.৯৭ কোটি টাকা এবং ৩৩৭৭৪ কর্পোরেট অ্যাসেসসি (ক্ষুদ্র ছোট-মাঝারি উদ্যোগ, ট্রাস্ট, অংশীদারি, মালিকানা কারবার সহ) রিফান্ড ‌করা হয়েছে ৬৭১৪.৩৪ কোটি টাকা। অর্থাৎ মোট ৯৩৮৭.৩১ কোটি টাকা রিফান্ড করা হয়েছে ১৫৬৫৩৮ করদাতাদের বলে জানানো হয়েছে।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও