নয়াদিল্লি: আয়কর দফতর এবার করদাতাদের কাছে ১৪টি ক্ষেত্রে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ থাকবে। সেগুলি হল-
১) আয়কর দফতর করদাতাদের ভদ্রতা পেশাদারিত্বের সঙ্গে দ্রুত পরিষেবা দেবে।
২) সন্দেহজনক কিছু না থাকলে করদাতাদের সৎ বলেই ধরে নেওয়া হবে
৩) আয়কর দফতরের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিলের জন্য করদাতাদের নিরপেক্ষ ব্যবস্থা থাকবে।
৪) আইন অনুযায়ী প্রাপ্য করই আদায় করা হবে।
৫) করদাতাদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করা হলেও তাদের পরিচয় গোপন রাখা হবে।
৬) আইনগত অনুমোদন না থাকলে করদাতাদের দেওয়া তথ্য গোপন রাখা হবে।
৭) আয়কর দপ্তরের কাছে অফিসারেরা দায়বদ্ধ থাকবেন
৮) করদাতারা নিজেদের প্রতিনিধি বাছাই করতে পারবেন।
৯) করদাতাদের অভিযোগ জানানোর এবং তার সমাধানের ব্যবস্থা থাকবে।
১০) নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে নিরপেক্ষভাবে কর সংক্রান্ত বিবাদ মেটানো হবে।
১১) নির্দিষ্ট সময় অন্তর অন্তর আয়কর দফতর পরিষেবার খতিয়ান জানাবে।
১২) আয়কর আদায় সংক্রান্ত খরচ কমানো হবে
১৩) আয়করদাতাদের সঠিক ও সুনির্দিষ্ট তথ্য জানানো হবে
১৪) আয়কর দফতর নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে যে কোনও সিদ্ধান্ত জানাবে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।