স্টাফ রিপোর্টার, আগরতলা: সুপ্রিম কোর্টে ফের ধাক্কা খেল ত্রিপুরা সরকার৷ রাজ্যের শিক্ষা দফতরে ১২,০০০ অশিক্ষক পদে নিয়োগ প্রক্রিয়ায় স্থগিতাদেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট। আগামী ২৪ অক্টোবর পুনরায় শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে।

এই সময়কালের মধ্যে সংশ্লিষ্ট পদগুলিতে নিয়োগপত্র ছাড়তে পারবে না রাজ্য সরকার। যদিও রাজ্য সরকার ইতিমধ্যেই এই পদে নিয়োগ চূড়ান্ত করে ফেলেছে৷ বুধবার সুপ্রিম কোর্টে ১২ হাজার অশিক্ষক নিয়োগের প্রক্রিয়ার উপর শুনানি শুরু হলে দেশের সর্বোচ্চ আদালত রাজ্য সরকারকে এখনই নিয়োগ প্রক্রিয়া স্থগিতাদেশ দেয়। ১০,৩২৩ জন শিক্ষকের চাকরি বাতিলের পর তাদের পুনরায় নিয়োগের জন্য রাজ্য সরকার অশিক্ষকের নতুন পদ তৈরি করে ও দ্রুত নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করে।

ত্রিপুরার সিপাহীজলা জেলার চড়িলাম এলাকার এক যুবক দেবাশিস পাল চৌধুরী সুপ্রিম কোর্টে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগ দায়ের করেন। মামলাটি গ্রহণ করে সুপ্রিম কোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ। সুপ্রিম কোর্ট ত্রিপুরার ১০,৩২৩ জন শিক্ষকের চাকরি বাতিল করার পর তাদের অশিক্ষক পদে নিয়োগের ইস্যুতে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার নোটিশ ইস্যু করে৷ আগামী ২৪ অক্টোবর পুনরায় শুনানির দিন ধার্য হয়েছে। এদিকে, ত্রিপুরা বিধানসভা নির্বাচনের আগে চাকরি নিয়ে রাজ্য সরকারের লেজেগোবরে অবস্থা শাসক দল সিপিএমকে বিপাকে ফেলছে বলে রাজনৈতিক মহলের অভিমত।

- Advertisement -