গুগল থেকে প্রাপ্ত ছবি

স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: শেষ হল নোয়াপাড়া উপ-নির্বাচনের প্রচার। শেষবেলায় জমজমাট প্রচার দেখা গেল তৃনমূল কংগ্রেস ও বিজেপির। নোয়াপাড়ার তৃনমূল কংগ্রেস প্রার্থী সুনীল সিংকে নিয়ে প্রচার করলেন অভিনেতা সোহম। হুড খোলা গাড়িতে নোয়াপাড়া বিধানসভার অন্তর্গত মনিরামপুর এলাকায় শেষ লগ্নে প্রচার সারেন অভিনেতা সোহম এবং প্রার্থী সুনীল সিং।

অভিনেতা সোহম বলেন, ‘‘মমতা বন্দোপাধ্যায়ের উন্নয়নই প্রচারের একমাত্র হাতিয়ার। মানুষ ভোটের ফলাফলে সবুজ আবিরে রাঙিয়ে দেবে নোয়াপাড়ার আকাশ।’’ প্রার্থী সুনীল সিংয়ের দাবি, ‘‘মানুষ সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছে। কংগ্রেসের হাত থেকে এই আসন তৃনমূলের হাতেই আসবে। এবার বাম কংগ্রেস জোট নেই, ফলে আমার জয় নিশ্চিত৷’’

অন্যদিকে বিজেপি প্রার্থী সন্দীপ বন্দোপাধ্যায়ের সমর্থনে শেষ বেলার প্রচারে ঝড় তুললেন বিজেপি নেত্রী তথা অভিনেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায় এবং মুকুল রায়। শ্যামনগর চৌরঙ্গি থেকে হুডখোলা গাড়িতে সন্দীপ বন্দোপাধ্যায়কে সঙ্গে নিয়ে ইছাপুর এলাকা পর্যন্ত প্রচার সারেন তাঁরা। মুকুল রায় অভিযোগ করেন, ‘‘বাংলায় গনতান্ত্রিক পরিবেশ নেই। কেন্দ্রীয় বাহিনীও পর্যাপ্ত নয়। তবুও মানুষ ভোট দিতে পারলে নোয়াপাড়া কেন্দ্রে পরিবর্তন আসবে।’’

বিজেপি নেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘‘এখন পুলিশ তৃনমূল কংগ্রেস ক্যাডারের ভূমিকা পালন করছে। কেন্দ্রীয় বাহিনীকে রাজ্য পুলিশ কতটা কাজ করতে দেবে সেটাই বড় প্রশ্ন। নোয়াপাড়া কেন্দ্রে নিশ্চিত করে বিজেপির ভোট বাড়বে। মানুষ নির্ভয়ে সকাল সকাল যতক্ষন ভোটদান করতে পারবে, ততক্ষন বিজেপির পক্ষেই ভোট হবে।’’

এদিন গারুলিয়া অঞ্চলে বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোট প্রচার সারেন সিপিএম প্রার্থী গার্গী চট্টোপাধ্যায়। তিনি বলেন, ‘এই নির্বাচন আমরা জানপ্রান দিয়ে লড়ছি। প্রতিটা বুথেই আমাদের এজেন্ট বসবে। মানুষ শাসক দলের সন্ত্রাস উপেক্ষা করেই ভোট দান করবে।’’ একই ভাবে প্রচারের শেষদিন বাড়ি বাড়ি গিয়ে প্রচার সারেন কংগ্রেস প্রার্থী গৌতম বসু। তিনি বলেন, ‘‘মানুষ ভোট দিতে পারলে এই আসনটি পুনরায় কংগ্রেসের দখলেই থাকবে। মানুষ মধুসূদন ঘোষের স্মরনে তাঁকে শ্রদ্ধা জানাতে কংগ্রেসকেই এই আসনে ভোটদান করে জয়ী করবে’’
প্রত্যেক প্রার্থীর দাবি, জিতবেন তিনি৷ কিন্তু সত্যি কে শেষ হাসি হাসবে, তা জানতে ভোট গণনা পর্যন্ত অপেক্ষা করতেই হবে৷

স্বামীর সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে বস্ত্র ব্যবসাকে অন্যমাত্রা দিয়েছেন।'প্রশ্ন অনেকে'-এ মুখোমুখি দশভূজা স্বর্ণালী কাঞ্জিলাল I