নয়াদিল্লি: রাত ঠিক আটটায় জাতি উদ্দেশে ভাষণ দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। উল্লেখ করলেন দেশের সম্পদের। দেশের লোকবলের, তাদের ক্ষমতার। দেশের অর্থনীতির ক্ষমতা রয়েছে জেগে ওঠার বলে আশ্বাস দিলেন প্রধানমন্ত্রী।

এদিন প্রধানমন্ত্রী বলেন ভারতের নিজের ওপর বিশ্বাস রয়েছে। এদেশের যুবশক্তি গোটা বিশ্বকে চালনা করার ক্ষমতা রাখে। ২১ শতকের ভারত বিশ্বকে পথ দেখাবে। তার জন্য ভারতের কাছে রয়েছে পাঁচটি স্তম্ভ বা পিলার। মোদী এদিন বলেন এই পাঁচটি স্তম্ভ হল

১. অর্থনীতির ঘুরে দাঁড়ানোর ক্ষমতা

২. পরিকাঠামো

৩. প্রযুক্তি নির্ভর ব্যবস্থা

৪. জনঘনত্ব বা জনসংখ্যার বিশালতা

৫. বুদ্ধিমত্তা

এদিন তিনি জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণে দেশের জন্য বিশেষ আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণা করলেন।

দেশের সব মানুষই এই প্যাকেজের আওতায় থাকবেন। বুধবার থেকে অর্থমন্ত্রী ‘আত্মনির্ভর ভারত অভিযান’-এর এই প্যাকেজের ব্যাখ্যা করবেন বলে জানালেন প্রধানমন্ত্রী। মোট ২০ লক্ষ কোটির প্যাকেজ ঘোষণা করলেন তিনি, যা ভারতের জিডিপি-র প্রায় ১০ শতাংশ বলে জানিয়েছেন তিনি।

কুটির উদ্যোগ, গ্রামোদ্যোগ, কৃষি ক্ষেত্র, মধ্যবিত্ত সবার জন্যই কাজ করবে এই প্যাকেজ। মোদী বলেন, এতে ভারতের সব সেক্টরের গতি বাড়বে ও কাজের মানও উন্নত হবে।

১৮ মে থেকে নতুন পর্যায়ের লকডাউন চালু হবে। থাকবে নতুন নিয়ম। জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দিতে গিয়ে স্পষ্ট জানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ১৭ মে শেষ হচ্ছে তৃতীয় দফার লকডাউন। তারপর দেশ জুড়ে কী নিয়ম জারি হতে পারে, তা শীঘ্রই জানানো হবে বলে জানালেন মোদী।

নতুন পর্যায়ের লকডাউন যে হবে, সেই ইঙ্গিত আগেই দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। সোমবারই সেই বিষয় নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে আলোচনা করেন তিনি। আর মঙ্গলবার জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দিতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘১৮ মে-র আগেই নতুন লকডাউনের নিয়ম জানিয়ে দেওয়া হবে।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প